সারিফুল আলম, টিডিএন বাংলা, দিল্লি: ১০ই এপ্রিল ঝাড়খণ্ডের গুমলা জেলায় গো-হত্যার অভিযোগে প্ৰকাশ লাখরা নামে এক আদিবাসীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।ঘটনায় গুরুতর আহত হন আরও তিনজন ৷ এরই বিরুদ্ধে সোমবার নয়াদিল্লির ঝাড়খন্ড ভবনের সামনে নাগরিক সমাজ এবং মানবাধিকার কর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

এদিন ঝাড়খণ্ডের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে শ্লোগান ধ্বনি ওঠে।ইউনাইটেড অ্যাঙ্গেস্ট হেট, ইউনাইটেড খ্রিস্টান ফোরাম, এসআইও এবং ভগত সিং আম্বেদকর ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ দেখানো হয়।গোরক্ষার নামে সাধারণ মানুষকে হত্যা এবং গণপিটুনির ঘটনার জন্য কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারকে দোষারোপ করে সকলে।

বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী আজহার শেখ বলেন,যেভাবে গোরক্ষার নামে সাধারণ মানুষকে আইনকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে হত্যা করা হচ্ছে এর পিছনে রাজনৈতিক নেতাদের মদত কাজ করে।কোন কোন সময় প্রশাসনের সাহায্যে তারা আইনকে খুব সহজে তুলে নেয়।মানুসের মনে ত্রাস এবং ঘৃনা তৈরি করা হচ্ছে।এর বিরুদ্ধে সরকারকে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানায়। আসিফ তানহা নামের এক প্রতিবাদকারী জানান,গণপিটুনি বন্ধের জন্য আইন নিয়ে আসা উচিত,তবেই এই ধরনের ঘৃনামূলক কাজ বন্ধ হবে।