টিডিএন বাংলা ডেস্ক: “এক জন অনুপ্রবেশকারীকেও থাকতে দেব না” চলতি মাসের প্রথম দিনেই কলকাতায় সভা করে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন অমিত শাহ। এ বার এক সাক্ষাৎকারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানালেন, শুধু বাংলায় নয়, গোটা দেশেই এনআরসি হবে। এনআরসি প্রক্রিয়ার গতিও যে বাড়ানো হচ্ছে, সে ইঙ্গিতও স্পষ্ট ভাবেই দিলেন তিনি।

অসমে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হওয়ার আগেই অনেকের নাগরিকত্বকে ‘সন্দেহজনক’ আখ্যা দেওয়া হয়েছিল। তাঁদের ‘ডি-ভোটার’ করে দেওয়া হয়ে‌ছিল। তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল ডিটেনশন ক্যাম্পে। কোকরাঝাড় এবং গোয়ালপাড়া জেলায় কয়েকটি সংশোধনাগারের মধ্যেই সেই ডিটেনশন ক্যাম্পগুলি তৈরি করা হয়েছিল। এ বার গোয়ালপাড়ায় আলাদা জমি চিহ্নিত করে সেখানে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। পাশাপাশি কর্নাটক এবং মহারাষ্ট্রেও তৈরি হচ্ছে ডিটেনশন ক্যাম্প। এই ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, “দেশের নানা প্রান্তে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি করা হচ্ছে কারণ, সরকার গোটা দেশে এনআরসি চালু করার জন্য ‘আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে’। “প্রক্রিয়াটা সবে শুরু হয়েছে’’ বলে জানিয়েছেন তিনি।