নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: দিদি মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয় এখনও হয়নি কেন? “দিদিকে বলো” হেল্প লাইন নম্বরে ফোন করে অভিনব জিজ্ঞাসা করছেন মুর্শিদাবাদের যুবকরা। ২০১৮ সালে পঞ্চায়েত ভোটের আগে মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘোষণা হলেও এখনও পর্যন্ত বাস্তবায়ন না হওয়ায় ক্ষোভে সরাসরি এবার মুখ্যমন্ত্রীকে অভিযোগ জানাচ্ছেন জেলার ছাত্র সমাজ। ছাত্র সংগঠন এসআইও’র পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফেসবুক পোষ্ট করে মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করার আহ্বানেই মিলেছে ব্যপক সাড়া। ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করার আবেদন জানিয়ে সেই পোষ্টার।

উল্লেখ্য, ৭৫ লক্ষ জনসংখ্যা বিশিষ্ট মুর্শিদাবাদ জেলায় একটিও পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় নেই। দীর্ঘদিন ধরে জেলাবাসী আন্দোলন করে আসলেও জেলার শিক্ষা আন্দোলন নিয়ে সরকারের কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই। ছাত্র আন্দোলনের চাপে পড়ে ২০১৮ সালের ২৮ শে ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘোষণা দিলেও এখনও বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো কার্যক্রম শুরু হয়নি। স্বভাবতই প্রশ্ন উঠছে পঞ্চায়েত ভোটের আগে ভোট ব্যাঙ্কের স্বার্থেই কি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘোষনা দিয়েছিল সরকার? দীর্ঘদিন ধরেই জেলার প্রতি সরকারের এই দ্বিচারিতায় ক্ষুব্ধ জেলার আপামর জনতা। ঠিক এই মুহুর্তেই জনতার কাছ থেকে সরাসরি অভিযোগ শুনতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হেল্প লাইন নম্বর চালু করেছেন। আর সেই নম্বর পেয়েই এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি নিয়ে সরব হয়েছেন সকলে।

জেলার ফারাক্কার ছাত্র হযরত আলী, জঙ্গিপুরের সালমান হোসেন, মাসুদ আলী, ডোমকলের মোহাম্মদ ইব্রাহিম শেখ, জলঙ্গির সুলতান আলীরা জানান, রাজ্য সরকার যেভাবে আমাদের সাথে বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে প্রতারনা করছেন তাতে আমরা ক্ষুব্ধ। কেন এতদিন ঘোষনা হওয়ার পরেও জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় হয়নি তা জানতে চেয়েই আমরা মুখ্যমন্ত্রীর হেল্প লাইন নম্বরে ফোন করছি।