টিডিএন বাংলা ডেস্ক : আগে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক। পরে বালাকোটে এরিয়ার স্ট্রাইক। সেনার সাফল্যকে বারবার নিজেদের জনসভায় তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও তাঁর ব্রিগেডের অন্যান্য নেতারা। অন্যাদিকে বিরোধী শিবির সরকারের সাফল্য ফলাও করার অভিপ্রয়াসে জল ঢেলে দিতে হাতিয়ার করেছে ভোট প্রচারের মঞ্চকেই। তাই এবার নির্বাচন কমিশন সব রাজনৈতিক দলকে নোটিস দিয়ে জানিয়ে দিল, ভোট প্রচারে সেনাবাহিনীর জওয়ানদের ছবি ব্যবহার করা যাবে না। ওই নোটিসে বলা হয়েছে, দেশের সেনাবাহিনী একটি অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান। তাকে ভোটের কাজে ব্যবহার করা যাবে না।

সম্প্রতি বিজেপির পক্ষ থেকে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় একটি পোস্টার দেওয়া হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহের সঙ্গে রয়েছেন বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমান। নীচে লেখা, মোদী থাকলে সবকিছুই সম্ভব(মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়)। ওই পোস্টারটি নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকে আপত্তি তোলা হয়।

পোস্টারের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের নজরে আনেন প্রাক্তন আপ নেতা যোগেন্দ্র যাদব। তার পরেই এনিয়ে নোটিস জারি করে কমিশন। পাশাপাশি সব রাজনৈতিক দলকে জানিয়ে দেওয়া হয়, দলের নেতারা যেন ভোটের প্রচারে কোনও সেনাকর্মীর ছবি ব্যবহার করে প্রচার না করেন।