টিডিএন বাংলা ডেস্ক : ব্যবসা করতে গেলে অনেক টাকার দরকার। অনেক সময় অনেক টাকা খরচ করেও ব্যবসা লাভজনক হয় না। তাই রাজ্যবাসীদের গরু দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব।

এক ঘোষণায় মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি রাজ্যের পাঁচ হাজার পরিবারের মধ্য গরু বিতরণ করবেন। এতে যেমন রাজ্যের বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান হবে তেমনি পরিবারের সদস্যরা বাঁচবে অপুষ্টি থেকে। মাত্র ৬ মাসের মধ্যে লাভের মুখ দেখতে পারবে দরিদ্র লোকজন।

আগরতলায় দলের চিন্তন শিবির শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখী হন বিপ্লব দেব। সেখানে তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনেও গরু রাখা হবে। এতে আমার পরিবার যেমন পুষ্টির উৎস পাবে তেমনি রাজ্যের মানুষও গরু পালনে উৎসাহী হবেন, রাজ্যজুড়ে অপুষ্টি কমবে।

বিপ্লব দেব আরও বলেন, রাজ্যের পাঁচ হাজার পরিবারের মধ্যে গরু বিতরণ করা হবে। রাজ্যে শিল্পের বিরুদ্ধে আমি নই। কিন্তু কোনও বড় শিল্প করতে গেল কয়েক কোটি টাকা লাগে। সেখানে কর্মসংস্থান হয় মাত্র দুই হাজার লোকের। কিন্তু যদি রাজ্যের পাঁচ হাজার পরিবারে ১০ হাজার গরু বিতরণ করা হয় তাহলে তারা ৬ মাসের মধ্যেই আয়ের মুখ দেখতে পারবেন। এমন কোনও শিল্প রয়েছে যেখানে ৬ মাসের মধ্যে আয়ের ব্যবস্থা হয়? ৬ মাস লেগে যায় শুধু জমি কিনতেই।

উল্লেখ্য, এরকম কথা আগেও বলেছেন বিপ্লব দেব। সম্প্রতি তিনি মন্তব্য করেন, রাজনৈতিক নেতাদের পেছনে না দৌঁড়ে রাজ্যের তরুণদের উচিত গরু পালন করা। প্রতি লিটার দুধ বিক্রি হয় ৫০ টাকায়। রাজ্যের স্নাতকরা দুধ বিক্রি করে ১০ বছরে অন্তত ১০ লাখ টাকা আয় করতে পারে। এছাড়া এর আগে রাজ্যের তরুণদের পানের দোকান খোলারও পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী।