টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নারদ মামলায় ম্যাথু স্যামুয়েলকে জেরা করে একাধিক তথ্যপ্রমাণ পেয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। সিবিআই-এর কাছে তৎকালীন নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েল স্বীকার করেছেন যে তিনি মুকুল রায়ের নির্দেশেই এসএমএইচ মির্জাকে টাকা দিয়েছিলেন। সিবিআই-এর তলবে এদিন তিনি দমদম বিমানবন্দর হয়ে কলকাতায় আসেন। সেখানেই তিনি এই কথা বলেন বলে সূত্রের খবর। মুকুল রায় টাকা না নিলেও তিনি অপরাধী, মন্তব্য করেছেন ম্যাথু। তিনি কার্যত বোঝানোর চেষ্টা করেছেন তিনি টাকা না নিলেও ঘুরপথে তা নিয়েছে।

এসএমএইচ মির্জাকে টাকা দেওয়ার কথা বলেছিলেন বলে বিস্ফোরক দাবি করেছেন ম্যাথু স্যামুয়েল। পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন মুকুল রায়কে সরাসরি তিনি কোনও টাকা দেননি। ম্যাথু স্যামুয়েলের আরও দাবি, টাকা দেওয়ার সময় মুকুল রায়ের ঘরের কাছাকাছি ছিলেন বর্তমানে সাসপেন্ডেড আইপিএস মির্জা। যেই সময়ের অভিযোগ, সেই সময় বর্ধমানের পুলিশ সুপার ছিলেন মির্জা।

বিমানবন্দের ম্যাথু স্যামুয়েল অভিযোগ করেন কলকাতা পুরসভায় বসে তৎকালীন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় তাঁর কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলেন। তাই তাঁকে গ্রেফতার করা উচিত বলেও মন্তব্য করেন ম্যাথু স্যামুয়েল। এর আগে প্রাক্তন নারদ কর্তা জানিয়েছিলেন সিবিআই যখনই তাঁকে তলব করেছে তখনই তিনি হাজিরা দিয়েছেন। অন্তত ২০ বার সিবিআই তাঁকে তলব করেছিল বলে জানিয়েছিলেন ম্যাথু স্যামুয়েল। সিবিআই যখন যা প্রমাণ চেয়েছে, তখন সেই তিনি তদন্তকারীদের কাছে জমা দিয়েছিলেন বলেও জানিয়েছিলেন ম্যাথু। এই ধরনের মামলায় কেন এত দেরি হচ্ছে তা নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন করেছিলেন তিনি।