টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দ্বিতীয়বার মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দেশে আর্থিক মন্দা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন শিল্পক্ষেত্রে উৎপাদন কমেছে। বিশেষ করে ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ি বাজার। শেয়ার বাজারের মন্দা কাটছেই না। একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কমছে টাকার দাম। জিডিপি বৃদ্ধিও কমতে শুরু করেছে। আর নিয়েই সোমবার শীতকালীন অধিবেশনে প্রথম দিনেই মোদী সরকার তীব্র আক্রমণ করল বিরোধীরা। তৃণমূল কংগ্রেস, কংগ্রেস সহ একাধিক রাজনৈতিক দলের সাংসদরা অধিবেশন শুরু প্রথম থেকেই একের পর এক মুলতুবি প্রস্তাব পেশ করতে শুরু করেন। কাশ্মীর থেকে অর্থনৈতির মন্দা সব ইস্যুতেই মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানিয়েছেন বিরোধী সাংসদরা। দেশের আর্থিক সংকট মোকাবিলায় মোদী সরকার ব্যর্থ বলে অভিযোগ করেছেন বিরোধীরা।

গত কয়েক মাস ধরেই কংগ্রেস দেশের আর্থিক মন্দার জন্য মোদী সরকারকে আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস নেতারা। সোনিয়া গান্ধী থেকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং সকলেই মোদী সরকারের আর্থিক নীতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। মোদী সরকার আর্থিক পরিস্থিতি ঠিক করার পরিবর্তে বিরোধীদের উপর দোষ চাপাতে তৎপর বলে অভিযোগ করেছিলেন মনমোহন সিং। এমনকী রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গভর্নর রঘুরাম রাজনও দেশের আর্থিক পরিস্থিতির জন্য মোদী সরকারকেই দায়ী করেছে। কাজেই শীতকালীন অধিবেশনে যে মোদী সরকারকে এই নিয়ে বিরোধীদের সমালোচনার মুখে পড়তে হবে তা বলাই বাহুল্য।