টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ পাঁচ দিন ধরে পরিবারের মুখে একদানা খাবার না তুলে দেওয়ার দুঃখে গলায় ফাঁস লাগিয়ে যোগী রাজ্যে আত্মঘাতী হলেন এক ব্যক্তি। শনিবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের কাশগঞ্জ জেলায়। স্থানীয় জঙ্গলের একটি গাছ থেকে ধোলনা থানার পুলিশ উদ্ধার করে ৪১ বছর বয়সি ওই ব্যক্তির ঝুলন্ত মৃতদেহ। মৃত ব্যক্তির নাম পূর্ণা সিং। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশর অনুমান আত্মহত্যা করেছেন ওই ব্যক্তি।
স্থানীয়দের সূত্রে খবর, বেকার ওই ব্যক্তি স্ত্রী ও তিন সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে খুবই অভাবে দিন কাটাতেন। নিত্যদিন তাদের কাটতো অনাহারে। গত পাঁচদিন ধরে ওই পরিবারের সদস্যরা কিছু না খেতে পাওয়ায়, ভিক্ষা করে বা প্রতিবেশীদের থেকে চেয়ে পূর্ণা সিংকে খাবার আনতে বলেন তার স্ত্রী।

পূর্ণার ন ‘ বছর বয়সি এক মেয়ে গুড়িয়ার দাবি তাদের বাবা দিল্লিতে গিয়েছিলেন কাজের সন্ধানে। কিন্ত সেখানে কিছু না হওয়ায়, তিনি ফিরে আসেন সেই দিনই। বাড়ি ফিরে স্নান করে বেরিয়ে যান তিনি। পরের দিন ভোরে তার বাবার দেহ উদ্ধার হয় গাছে ঝুলন্ত অবস্থায়। যদিও ময়নাতদন্তে দেখা গিয়েছে মৃত ব্যক্তির পাকস্থলীতে খাবার ছিল। পাশাপাশি তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে গত ৫ আগস্ট ওই পরিবার স্থানীয় রেশন দোকান থেকে খাবার কিনেছে। তাহলে কেন এই আত্মহত্যা। তা নিয়ে ঘোনাছে রহস্য। যুগশঙ্খ