Rape

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নিত্যদিনে একের পর এক নারকীয় ঘটনার সাক্ষী যোগীরাজ্য উত্তরপ্রদেশ। ফের রক্ষক ভক্ষকের ভূমিকায়, হোটেলে যুবতীকে একা পেয়ে রাতভর ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল ২ পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, ২০ বছরের ওই যুবতী তাকে ছেড়ে দেওয়ার কাতর আর্জি জানালে তাকে বেশ্যা অপবাদ দিয়ে শরীর ছিঁড়ে খায় ওই ২ পুলিশ কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদশের গোরক্ষপুরে। ঘটনায় ফের আরও একবার প্রশ্নের মুখে যোগী রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা ও নারী নিরাপত্তা।

জানা গিয়েছে, গোরক্ষপুর স্টেশনের সামনেই রয়েছে একটি হোটেল৷ সেই হোটেলের রুমে এক অজ্ঞাত পরিচয় যুবকের সঙ্গে গিয়েছিলেন এক ওই যুবতী৷ তারপরই হোটেলের রুমে হানা দেয় পুলিশ৷ তাকে ছেড়ে দিতে বারবার অনুরোধ করেন যুবতী, কিন্তু কোনও কথাই শোনেননি দুই পুলিশকর্মী৷ তাকে প্রচন্ড মারধর করা হয় ও হোটেলের ঘরেই চলে ধর্ষণ৷ পরে কোনও মতে মহিলা অটোরিক্সা করে বাড়ি পৌঁছান৷ ধর্ষণের ভিডিও ধরা পড়েছে হোটেলের সিসিটিভিতে৷

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে যুবতী জানিয়েছেন যে দেহব্যবসার সঙ্গে যুক্ত নন৷ তাকে মিথ্যে অপবাদ দেওয়া হয়েছে৷ গণধর্ষণের অভিযোগে স্থানীয় থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। পুলিশের উর্দিতে কীভাবে এমন নৃশংসা কাজ করছে, এই নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরব হয়েছে কংগ্রসে, সমাজবাদী পার্টি, বিএসপি, সব দলই। অবিলম্বে ওই দুই পুলিশকর্মীকে গ্রেফতারের দাবি তুলেছে তারা৷ ঘটনার পর থেকেই পলাতক দুই অভিযুক্ত পুলিশকর্মী। তাদের খোঁজে তল্লাশি পুলিশ।