টিডিএন বাংলা ডেস্ক: প্রায় ২০ দিন ধরে কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছেনা পতিদার নেতা হার্দিক প্যাটেলের। কিন্তু হার্দিকের নিখোঁজ হওয়ার পিছনে গুজরাট সরকারের হাত রয়েছে, এবার এমনটাই বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন স্ত্রী কিঞ্জল প্যাটেল। এমনকি এটা বিজেপির চক্রান্ত বলেই দাবি করেছেন স্ত্রী।

২০১৫ সালের একটি দেশদ্রোহিতার মামলায় একাধিকবার আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন হার্দিক প্যাটেল। তারপরেই হার্দিকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। গত ১৮ জানুয়ারি গ্রেপ্তার কর হয়। জানুয়ারির ১৮ তারিখে গ্রেপ্তার হওয়ার চার দিন পর জামিন পান তিনি। ফের অন্য দুটি মামলায় গুজরাটের বিরমগ্রামের হাসলপুরের কাছ থেকে হার্দিক প্যাটেলকে গ্রেপ্তার করে গুজরাট পুলিশ। এই দুই মামলায় তিনি জামিন পান ২৪ তারিখ। তারপর থেকে তাঁর খোঁজ নেই।

এদিকে ফেব্রুয়ারি মাসের ১৩ তারিখ পেরিয়ে গেলেও তার ঘরে না ফেরার চিন্তায় কার্যত চরম উদ্বেগে পরিবার। মুখোমুখি তো নয়ই বরং, ফোনেও কথা হয়নি স্ত্রী অঞ্জলীর সাথে। এভাবেই স্বামীকে নিয়ে আশঙ্কা আর উদ্বেগ প্রকাশ করেন হার্দিকের স্ত্রী অঞ্জলি। গত সোমবার স্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, ‘আমার স্বামীকে একাধিক মামলায় গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়। একবার জেল থেকে বেরোলে অন্য মামলায় ফের গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিন তিনি তার স্বামীর জীবনহানির আশঙ্কাও করেন।

সম্প্রতি, কিঞ্জল সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেই ভিডিওয় কিঞ্জল বলেছেন, আমার স্বামী ২০ দিন ধরে নিখোঁজ। কোথায় রয়েছে তা জানি না। কোনও তথ্য পাচ্ছি না। তাঁর অনুপস্থিতি গভীর বেদনা দিচ্ছে। এরপর তাঁর স্বামীর নিখোঁজ হওয়ার পিছনে গুজরাটের বিজেপি সরকারের হাত রয়েছে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন।