টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ সনু নিগমের আজান বিতর্কে যখন দেশবিদেশে চলছে সমালোচনার ঝড়, তখন এমন সময় সোনু নিগমের পাশে এসে দাঁড়াল বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। বুধবার রাতে এই বিতর্কিত লেখিকা টুইটে লিখে, “ইমামরা মিথ্যাবাদী। ওরা টাকা দেবে না”।

সেইসাথে টুইটে তসলিমা উল্লেখ করে, তারমুখে কালি মাখানোর জন্য একবার কলকাতারই এক ইমাম ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছিলেন। তসলিমার এক ‘বন্ধু’ তার মুখে কালি মাখালেও সেই ৫০ হাজার টাকা দেইনি।

প্রসঙ্গত, আজানের শব্দে ঘুম ভেঙে যায় বলে সম্প্রতি টুইটার বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে গায়ক সোনু নিগম। তাঁর মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করে পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু ইউনাইটেড কাউন্সিলের সহ-সভাপতি সৈয়দ শাহ আতেফ আলি ফতোয়া জারি করে বলেন যে, সোনুর মাথা কামিয়ে গলায় একজোড়া ফাটা জুতোর মালা পরিয়ে গোটা দেশে ঘোরাতে পারলে ১০ লক্ষ টাকা ইনাম দেবেন।  তার চ্যালেঞ্জের জবাব দিতে সনু নিগম মাথা কামিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তার এক ঘনিষ্ঠ ইমামকে ১০ লক্ষ টাকা দিতে বলে ওই ফতোয়াকারীকে।কিন্তু ওই ব্যক্তি দাবি করে সনু নিগম তিনটির একটি শর্ত পূরণ হয়েছে,বাকি শর্ত পূরণ করলে তবেই মিলবে ইনাম।

এরপরে টুইটারে তসলিমা আজানের বিরুদ্ধে লিখতে গিয়ে বলে, “যেকোনো ধর্মীয় কারণে শব্দদূষণ বন্ধ হওয়া উচিত”।
আজান সুন্দর হতেই পারে। কিন্তু ঘুমোনোর সময়, পড়াশোনা বা কাজের সময় কারও ইচ্ছা হতেই পারে তিনি আজান শুনবেন না। যদি প্রার্থনার জন্য উঠতে হয়, তাহলে ফোনে অ্যালার্ম দিয়ে রাখা উচিত বলে টুইট করেছেন তসলিমা নাসরিন।