টিডিএন বাংলা ডেস্ক: করোনায় নাজেহাল গোটা দেশ। করোনা মোকাবিলায় মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সারা দেশ ২১ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা করেছেন। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে পুলিশকে তরবারি উঁচিয়ে চ্যালেঞ্জ করলেন যোগী রাজ্যের স্বঘোষিত ‘গড উওম্যান’ ‘মা আদিশক্তি’। তিনি পুলিশকে চালেঞ্জ জানিয়ে বলেন, ‘‘চেষ্টা করে দেখুন। সরিয়ে দেখান আমাকে।” ২১ দিনের সম্পূর্ণ লকডাউনের পরিস্থিতিতে লাল শাড়ি পরা এক মহিলা হাতে তরবারি নিয়ে মুখোমুখি হলেন পুলিশকর্মীদের। দু’চোখে বিদ্রোহের সুর। এমন এক দৃশ্যই ধরা পড়ল মোবাইল ক্যামেরায়। শেষ পর্যন্ত তাঁকে গ্রেফতার করে টানতে টানতে ভ্যানে তুললেন পুলিশকর্মীরা। এই স্বঘোষিত ‘গড উওম্যান’-এর নাম ‘মা আদিশক্তি’। বুধবার সকালে এক ধর্মীয় সমাবেশের ডাক দেন তিনি। প্রায় এক ঘণ্টা এই নিয়ে তুমুল বাকবিতণ্ডার পরে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার আগে দুই ট্রাক ভর্তি পুলিশের উদ্দেশে তরবারি দেখিয়ে হুমকি দিতে দেখা যায় ‘মা আদিশক্তি’-কে। তাঁকে গ্রেফতারের পাশাপাশি তাঁর অবুঝ ভক্তকুলকে সামলাতে মৃদু লাঠিচার্জও করতে হয় পুলিশকে।

মহিলাকে গ্রেফতার হতে দেখেই চম্পট দেয় তাঁর ভক্তেরা। এরপর এলাকায় ফিরে আসে শান্তি। জারি থাকে লকডাউন জানিয়েছে পুলিশ। জানাগেছে বুধবার সকালে উত্তরপ্রদেশের দেওরিয়া জেলার মেহদা পূর্বাতে এক মহিলার বাড়িতে প্রায় একশো মানুষের জমায়েত হয়। কেউ গোপনে খবর দেয় পুলিশকে। লাঠি হাতে ঘটনাস্থলে হাজির হয় পুলিশ। কিন্তু পুলিশও সহজে ওই জমায়েত ভাঙতে পারেনি। শুরু হয় নাটক।

এক পুলিশকর্মী লাউডস্পিকারে ঘোষণা করেন, ‘‘আমরা আপনার ও আপনার ভক্তদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করব। এটা আপনার শেষ সুযোগ। এই জমায়েত বন্ধ করুন। সবাই বাড়ি চলে যান। অন্যথায় আমরা পদক্ষেপ করতে বাধ্য হব।” তার আগেই তরবারি হাতে পুলিশকে হুমকি দিতে দেখা যায় ওই মহিলাকে।

এরপর ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, ওই মহিলাকে তাঁর তরবারি সমেত সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। সেই সময় তাঁকে চেঁচিয়ে বলতে শোনা যায়, ‘‘আমি আমার নিজের ইচ্ছেয় এসেছি।”