টিডিএন বাংলা ডেস্ক: এইডসের প্রকোপ থেকে বাঁচতে হু’র কাছে আন্তর্জাতিক সাহায্য চাইল পাকিস্তান। সম্প্রতি  পাকিস্তানের দক্ষিণ প্রান্তে অবস্থিত রাটোডেরো শহরের প্রায় ৭০০ জনের রক্তে মিলেছে এইচআইভি’র জীবাণু। পাক প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, হাতুড়ে চিকিৎসকদের দ্বারা ব্যবহৃত সিরিঞ্জের মাধ্যমেই মূলত ছড়িয়েছে এই জীবাণু।

পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাফর মির্জা জানিয়েছেন, ৩১ মে হু’র একটি বিশেষ প্রতিনিধিদল রাটোডেরো পৌঁছেছে।  তারা এই প্রাদুর্ভাবের কারণ অনুসন্ধান করবে এবং তা নিয়ন্ত্রণের জন্য পরামর্শদান করবে। এইচআইভি পরীক্ষা সহ রোগ নিরাময়ে সাহায্য এবং পরিবারের কাউন্সিলিং’এ বিশেষ সাহায্যদান করবে হু। পাশাপাশি, মহামারির রূপ যাতে না নেয় তাও নিশ্চিত করবে তারা

তিনি আরো জানান, হু’র বিশেষজ্ঞদের একটি প্রতিনিধিদল রাটোডেরোতে গিয়ে বয়স্ক এবং শিশুদের চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় পরিকাঠামো খুঁটিয়ে দেখবে।  একাধিকবার সিরিঞ্জ ব্যবহারের যে অভিযোগ উঠেছে তা’ও খতিয়ে দেখবে তারা।

পাকিস্তানের জাতীয় এইডস নিয়ন্ত্রণ সংস্থা জানিয়েছে , ৭২৮ জনের রক্তে মিলেছে এইচআইভি’র জীবাণু। যার মধ্যে ৫৯৫ জনই শিশু।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই ঘটনা পৃথিবীতে সর্বপ্রথম  ঘটেছে যেখানে এইডস আক্রান্তদের সিংহভাগই শিশু। ৭৩ জন মহিলার রক্তেও মিলেছে এই জীবাণু।