টিডিএন বাংলা ডেস্ক: এবারের শহীদ দিবসে সবচেয়ে কম লোক এসেছে। রবিবার ২১ শের শহীদ দিবস কে কটাক্ষ করে ফ্লপ শো বললেন বিজেপি রাজ‍্যসভাপতি তথা মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ। এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, ২৬ বছরের ইতিহাসে এবারের শহিদ দিবসে সবচেয়ে কম লোক এসেছে। আমাদেরকে বললে আমরা লোক দিলাম।

এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, এদিনের শহিদ দিবসের জমায়েত ফ্লপ হবে, তা আগে থেকে জানতে পেরেই তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়ছে। এদিন সরাসরি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে বলেন, সিপিএম এর সহযোগিতায় ব্রিগেড ভরাতে পারেননি। একইসঙ্গে তৃণমূল নেত্রীর করা লোক যোগাবার জবাবে এদিন বিজেপির রাজ্যসভাপতি বলেন, পুলিশ দিয়ে তৃণমূল নেত্রী দলের নেতাদের আকটে রেখেছেন। ডিম ভাত খাইয়ে আর সভায় লোক টানা যাবেনা বলেও এদিন কটাক্ষ করেন দিলীপ। দিলীপ ঘোষ পালটা বলেন ‘১৯ তৃণমূল হাফ, ২১ তৃণমূল সাফ’।

বিজেপির রাজ্যসভাপতি আরও বলেন, তৃণমূলের ব্যর্থতার দায় বিজেপির কাঁধে চাপানো হচ্ছে। তিনি বলেন, মমতার জনসভায় লোক আসেনি। তাঁদের বললে তাঁরা লোক দিতেন। পাশাপাশি ২ কোটি টাকার বিনিময়ে বিধায়ক কেনার অভিযোগের পালটা দিলীপ এদিন বলেন, যে বিধায়কে টাকার বিনিময়ে কেনার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তিনি তাঁর নাম বলুন। সিবিআইকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছোটো করছেন। জেলা সফর প্রসঙ্গে দিলীপের কটাক্ষ, লোকসভা নির্বাচনের আগেও তৃণমূল নেত্রী জেলা সফর করেছিলেন, আর ঝড়ে তাঁরা উড়ে গেছেন।

অন্যদিকে শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির প্রসঙ্গে মমতার বলা কথার জবাবে এদিন বিজেপির রাজ্যসভাপতি বলেন, শিক্ষকদের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্মান করেন না। একইসঙ্গে ক্যাগের রিপোর্ট সামনে এনে আরও একবার শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় রাজ্যে দুর্নীতি হয়েছে, বলে অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ। একইসঙ্গে এদিন চিড়িয়াখানা দুপুরে খোলার প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্যসভাপতি তীব্র ব্যঙ্গাত্মক সমালোচনা করেন তৃণমূল নেত্রীর।

পাশাপাশি এদিন দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেন, রাজ্যের যুবক-যুবতীরা রাজ্যের বাইরে কাজে যাচ্ছে। অন্যদিকে ভাটপাড়ার প্রসঙ্গে এদিন আরও একবার সরাসরি তৃণমূলকেই দায়ি করেন দিলীপ ঘোষ। যদিও ইভিএম এর বদলে ব্যালটে ভোট করার প্রধান স্লোগান তথা দাবি প্রসঙ্গে একটি কথাও এদিন বলেনি দিলীপ ঘোষ। শুধু সাংবাদিকদের প্রশ্ন কৌশলে এড়িয়ে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, সব কথার উত্তর দেওয়ার প্রয়জন নেই।