টিডিএন বাংলা ডেস্ক : দেশজুড়ে বিরাজ করেছে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প। দলিতদের উপর আক্রমন, কখনো গৌরক্ষার নামে হেনস্থার শিকার এবং প্রানের বলি হতে হচ্ছে
সংখ্যালঘুদের। এহেন অসহিষ্ণুতা এবং দেশজুড়ে চলা অপ্রীতিকর ঘটনাবহুলের উপর গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে অভিজ্ঞ সাংবাদিক ও প্রাক্তন কূটনীতিক কূলদীপ নায়ার বলেন, বর্তমান সময়ে যা ঘটছে আমরা স্বপ্নেও এই দিনগুলি কল্পনা করতে পারেনি।
তিনি ভারতে হিন্দু রাষ্ট্রের দাবিকে নাকচ করে জানান, এই দেশ সবার। এটি একটি হিন্দু রাষ্ট্র নয়। দেশের সাংবিধানিক আইন আছে।সংবিধানে এক ব্যক্তির এক ভোট আছে। কারো সম্প্রদায় বড় না ছোট এর উপর ভিত্তি করে কেউ হিন্দুরাষ্ট্র দাবি করতে পারে না।
এই প্রসিদ্ধ সাংবাদিক চলমান অবস্থার বর্ণনা দিতে গিয়ে স্বাধীনতার প্রসঙ্গ টেনে গভীর উদ্বেগের সহিত বলেন, আমরা স্বাধীনতার সময়ে এই রকম ভারতবর্ষের আশা করিনি। আমরা স্বপ্ন দেখেছিলাম সেই ভারতের, যেখানে হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে কোন বৈষম্য থাকবে না এবং সবাই একসঙ্গে কাঁধে কাধ মিলিয়ে বাস করবে। নায়ার, দেশকে একতরফা
চালিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। দেশের চলমান অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে উঠে দাঁড়াবার আহ্বান জানিয়ে বলেন, এই ক্ষমতাই থাকা শক্তির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে বলতে হবে, যেভাবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা গ্রহনযোগ্য নয়। আমাদের মধ্যে কতজন এই রকম লোক রয়েছে।
এদিন দিল্লিতে সর্বভারতীয় মুসলিম মজলিস-ই মুশাওয়ারতের আয়োজিত এক ইফতার অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে কুলদীপ নায়ার
উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও মুশাওয়ারত সভাপতি নাভেদ হামিদ, জামায়াতে ইসলামী হিন্দ সভাপতি মাওলানা সৈয়দ জালালুদ্দীন উমারী, পরিকল্পনা কমিশনের সাবেক সদস্যা
সৈয়দা সাঈদেন হামিদ, জাকাত ফাউন্ডেশনের সভাপতি জাফর মাহমুদ সহ মুসলিম সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব উপস্থিত ছিলেন।