টিডিএন বাংলা ডেস্ক : খেলার জগতে দাঁতে দাঁত চেপে তিনি শুধু লড়াই -ই করেন না। স্পষ্ট কথা এবং নিজের অবস্থান-দুটোই বুঝিয়ে দিতে পারেন দৃঢ়ভাবে। তিনি হলেন বিখ্যাত খেলওয়ার পিভি সিন্ধু। তিনি গিয়েছিলেন মেয়েদের উপর যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে একটি অনুষ্ঠানে। সেখানেই দৃঢ় বার্তা দিলেন তিনি‌। স্পষ্ট করে বললেন, ‘ভারতে সবাই মেয়েদের সম্মান দেওয়ার কথা বলে, কিন্তু সবাই সেটা এখনও রপ্ত করতে পারেনি।’ ‘মিটু’ কান্ডে একের পর এক মুখোশের আড়ালে থাকা ঘৃণ্য মানষিকতার মানুষগুলোকে সামনে এনেছেন নানা বয়সের মহিলা।

সিন্ধু আরও বলেন, ‘হায়দ্রাবাদ পুলিশ সোরোপটিমিষ্ট ইন্টারন‍্যাশনাল কর্মক্ষেত্রে মহিলাদের যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে উদ্যোগ নিয়েছে দেখে ভালো লাগছে। এভাবে কাউকে ইচ্ছের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থা করা অপমানজনক। হতে পারে এই হেনস্থা শারীরিক, মানষিক কিংবা লিখিতভাবে প্রোরচনামূলক কিছু। আমি খেলার জন্য সারা বিশ্বে ঘুরে বেড়ায়। সেখানে মহিলাদের সম্মান করা হয়। আমাদের দেশেও মেয়েদের সম্মান জানানোর কথা মুখে বলা হয়‌। কিন্তু খুভ কম মানুষই আছে সেটা মেনে চলেন। ব‍্যপারটা দেখে শুনে মনে হয়, মুখে বলার জন্য আমাদের দেশের মানুষ কথাটা বলেন। কাজে তার প্রতিফলন ঘটে না।’

তবে এখন যে সমাজে বদল এসেছে সে কথা স্বীকার করেছেন সিন্ধু। তাঁর কথায়, ‘একসময় মেয়েদের চাকরি করতে দেওয়া হত না। বাড়িতে থাকবে, এমন হুকুম থাকত। এখন ছবিটা বদলাচ্ছে। লোকে ছেলে ও মেয়েদের সমান ভাবতে শুরু করেছে। মহিলাদের নিজেদের ওপর সবার আগে আস্থা রাখা উচিত।’