টিডিএন বাংলা ডেস্ক: তখনও বুথ ফেরত সমীক্ষা সামনে আসেনি। ভোট মধ্য গগণে। বারবার তিনি ঘোষণা করেছিলেন বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ক্ষমতায় আসবে। বিজেপিকে ঠেকাতে মরিয়া চেষ্টা চালিয়েছে বিরোধীরা।

এই আবহে দাঁড়িয়ে সাংবাদিক ও লেখক রানা আউব বলেছিলেন, এনডিএ-র ২৬০ ছাড়ানো কঠিন হবে না। সেই দিকেই এগোচ্ছে লোকসভা ভোটের ফলাফল। লাস্ট ট্রেন্ড অনুযায়ী ৩৪৪ কেন্দ্রে এগিয়ে এনডিএ।

উত্তর প্রদেশে বিজেপিকে ঠেকাতে বুয়া-বাবুয়া জোট করেছিলেন। সেখানেও বিজেপিকে তাঁরা কোনোভাবেই ধাক্কা দিতে পারেননি। উল্টে তাঁরা নিজেরেই ধাক্কা খেয়েছেন। রানা বলেছিলেন, এই রাজ্যে ৮০ টি আসনের মধ্যে বিজেপি ৫০ টিরও বেশি আসন হবে। ট্রেন্ড সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে।

বাংলায় তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী ছিল, পদ্ম বাগিজা বিস্তার লাভ করবে। গণনা শুরু হতেই সেই প্রবণতা প্রকাশ পেতে থাকে। রানা বলেন, তিনি বাংলায় এক তৃণমূল নেতার সঙ্গে কথা বলেছিলেন। তিনি তাঁকে বলেন, বিজেপি ২ টির বেশি আসন পাবে না। সেই দাবি উড়িয়ে দেন রানা। তাঁরা ভোটারদের পালস বুঝতে পারেননি বলে দাবি করেন তিনি।

রানা বলেন, ২৩ মে কী হয়, সেদিকে তিনি তাকিয়ে ছিলেন। তিনি যে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, তার জন্য তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হতে হয়। সব হিসেব নিকেশ পাল্টে বিপুল শক্তিতে ক্ষমতায় আসতে চলেছে বিজেপি। এখনও পর্যন্ত যে ট্রেন্ড সামনে আসছে, তাতে সেই ইঙ্গিত স্পষ্ট। আর ভোট চলাকালীন এই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন রানা আউব।