টিডিএন বাংলা ডেস্ক : উপত্যকা জুড়ে নেতা ও কর্মীদের আটক করার ছয় দিন পর কেন্দ্রীয় সরকার জামায়াতে ইসলামি (জেআই)জম্মু ও কাশ্মিরকে বৃহস্পতিবার একটি “বেআইনী সংগঠন” ঘোষণা করেছে।
বেআইনি ক্রিয়াকলাপ (প্রতিরোধ) আইন (ইউএপিএ) এর ধারা ৩ -র অধীনে পাঁচ বছরের জন্য সংগঠনকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বরাস্ট্র মন্ত্রালয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, জামায়াতে ইসলামি জন্মু কাশ্মীর দেশ বিরোধী এবং ধ্বংসাত্মক ক্রিয়াকলাপের সাথে জড়িত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সভাপতিত্বে নিরাপত্তা সম্পর্কিত উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক শেষে জারি করা একটি বিজ্ঞপ্তিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় জানিয়েছে, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার ক্ষতিকারক ক্রিয়াকলাপে জড়িত থাকার এবং ঐক্য ও অখন্ডতা ব্যাহত করার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও বলা হয়েছে, যদি জেআই জম্মু-কাশ্মীরের বেআইনী কার্যক্রমগুলি তৎক্ষণাৎ নিয়ন্ত্রণ না করা হয়, তাহলে আইন দ্বারা প্রতিষ্ঠিত সরকারকে অস্থিতিশীল করে ভারতের টেরিটোরি অফ ইউনিয়ন এর বাইরে একটি ইসলামী রাষ্ট্র গঠনের প্রচেষ্টার সহিত এটি সহিংস ক্রিয়াকলাপগুলি বাড়িয়ে তুলতে পারে। এর সাথে বলা হয়েছে, যদি এই সংগঠনকে নিষিদ্ধ না করা হয় তবে ভারতের জম্মু-কাশ্মীর কেন্দ্র থেকে দেশবিরোধী ও বিচ্ছিন্নতাবাদী মনোভাব সম্পর্কিত অনুভূতিকে বাড়িয়ে দেবে এবং দেশের অখণ্ডতা ও নিরাপত্তা সম্পর্কিত ক্ষতি করবে। এছাড়াও বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনকে জোরদার এবং সহিংসতা বৃদ্ধি করবে। এদিকে জম্মু কাশ্মীর ভিত্তিক এই সংগঠনটিকে নিষিদ্ধ করার পর সংগঠনটির তরফে কোনও বিবৃতি পাওয়া যায়নি।