টিডিএন বাংলা ডেস্ক:  পাচ্ছেন না মহাজোটের সমর্থন। বেগুসরাই থেকে লড়ছেন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র নেতা কানহাইয়া কুমার। সিপিআই এবং সিপিআইএমকে বাদ দিয়েই বিহারের আসন সমঝোতা করে কংগ্রেস এবং আরজেডি। এর পরই বেগুসরাই থেকে কানহাইয়ার ভোটে দাঁড়ানো অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। তবে, শনিবার সিপিআইয়ের তরফে জানানো হয়, কানাহাইয়াকে বেগুসরাই থেকে প্রার্থী করা হচ্ছে।

প্রথম থেকেই বেগুসরাই থেকে ভোটে লড়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন সিপিআই নেতা কানহাইয়া। কয়েক দফায় আরজেডি নেতা তেজস্বীর সঙ্গে বৈঠকও হয়। এমনকি লালু প্রসাদের সঙ্গেও সিপিআইএম এবং সিপিআইয়ের আসন সমঝোতা নিয়ে আলোচনা করেন সীতারাম ইয়েচুরি। তবে, সূত্রে খবর, ওই কেন্দ্রে কানহাইয়াকে টিকিট দেওয়ায় বাধ সাধে খোদ তেজস্বী।

একটি সূত্র বলছে, বেগুসরাই কেন্দ্রে মুসলিম প্রার্থী দিতে চাইছে আরজেডি। কারণ, ২০০৯ সালে এই কেন্দ্র থেকে জনতা দল ইউনাইটেড-র মনাজির হাসান জয়ী হন। ২০১৪ সালে সামান্য ভোটে বিজেপি প্রার্থী ভোলা সিংয়ের কাছে হেরে গিয়েছিলেন আরজেডি জোট প্রার্থী তনবীর হাসান। তবুও, তনবীরের উপর ভরসা রাখছে আরজেডি। এ বারে তাঁকেই ফের প্রার্থী করা হয়েছে। বিজেপির হয়ে ওই কেন্দ্রে দাঁড়িয়েছেন গিরিরাজ সিং।