টিডিএন বাংলা ডেস্ক : উত্তরপ্রদেশে কৈরানা লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে বিরোধী প্রার্থী তাবাসসুম হাসান জয়ী হয়েছেন। তিনি প্রাক্তন বিজেপি এমপি হুকুম সিংয়ের মেয়ে বিজেপি প্রার্থী মৃগঙ্কা সিংকে ৪৯ হাজারেরও বেশি ভোটে পরাজিত করেছেন।
তাবাসসুম হাসান এই জয়কে সরকারের মিথ্যা প্রতিশ্রুতির বাগাড়ম্বরের ওপর সত্যের জয় বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘এটা আসলে মৃগঙ্কা সিংয়ের পরাজয় বা আমার জয় নয়। এটা আসলে পরাক্রমশালী নরেন্দ্র মোদি ও যোগী আদিত্যনাথের পরাজয়। বিরোধী জোটের জয় এবং বিজেপি’র জন্য লাল বিপদ সংকেত।’
বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে আরএলডি প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন তাবাসসুম হাসান। তাকে কংগ্রেস, সপা, বসপা ও অন্যরা সমর্থন জানানোয় তিনি কার্যত বিরোধীজোটের প্রার্থী হয়ে উঠেছিলেন।
নির্বাচনের আগে মুহাম্মদ আলী জিন্নাহকে বিজেপি ইস্যু করায় সে সম্পর্কে তাবাসসুম বলেন, জিন্নাহ অনেক আগে ছিলেন, এখন কেবল তার ছবি আছে। কিন্তু বিজেপি তাকেও ইস্যু করেছে। এরা উন্নয়ন ও কৃষকদের কথা বলে না, কেবল এ ধরণের ইস্যু তারা তুলে ধরে। অহংকারীরা বলে থাকে আমাদের কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু এখন উপরওয়ালাই বিকল্প তৈরি করে দিয়েছে। আমরা এভাবেই এগিয়ে যাব এবং ২০১৯ সালে বিজেপিকে পরাজিত করব।
তাবাসসুম হাসান বলেন, মানুষ মহাজোটকে গ্রহণ করেছে। রমজান মাস হওয়া সত্ত্বেও লোকেরা বেশি মাত্রায় ভোট দিয়েছেন। জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সকলেই আমাকে ভোট দিয়েছেন। তার দাবি, ২০১৯ সালে উত্তর প্রদেশে বিজেপি ৩টি আসনও পাবে না।
তাবাসসুম হাসান কংগ্রেস, সপা, বসপা, আম আদমি পার্টির নেতা-কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে কৈরানা কেন্দ্রে বিজেপি’র প্রতাপশালী প্রার্থী হুকুম সিং জয়ী  হয়েছিলেন। চলতি বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি তিনি মারা গেলে ওই আসনে সম্প্রতি উপনির্বাচন হয়।
তথ্যসূত্র : পার্সটুডে, দ্য ওয়্যার, টাইমস গ্রুপ