নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি চিঠি লিখে করোনাক্রান্ত ১০ হাজার রোগীর জন্য আইসোলেশন সেন্টার স্থাপনে জায়গা ও প্রয়োজনীয় অবকাঠামো প্রদানের প্রস্তাব দিয়েছে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ। সংগঠন মারফত এই খবর পাওয়া গেছে।
জমিয়ত বলছে, এছাড়াও অস্থায়ী চিকিৎসাকেন্দ্র স্থাপনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে সবধরণের সহযোগিতা করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যেই পুরো ভারত জুড়ে করোনা উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারতের নিম্ন আয়ের নাগরিক ও গরিবদের জন্য ত্রাণ তহবিল গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা সাইয়্যিদ মাহমুদ আস’আদ মাদানী।
সোমবার জমিয়তে উলামা হিন্দের সেক্রেটারী নিয়ায আহমদ ফারুকী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের জেনারেল সেক্রেটারী মাওলানা মাহমুদ মাদানী এ বিবৃতিতে বলেন, বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতি থেকে দেশের উত্তরণের জন্য সকল পর্যায়ের মানুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা ব্যতিত এই যুদ্ধ জয় করা সম্ভব হবে না। জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ সবসময় দেশের ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে গিয়েছে। দেশের এ দুর্যোগ মুহূর্তে দেশের মানুষের জন্য জমিয়তের এই কাজ তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

তিনি আরও বলেন, দেশের এই পরিস্থিতিতে জমিয়ত তাদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা বজায় রাখবে সার্বিক উত্তরণের আগ পর্যন্ত।

ত্রাণ তহবিল গঠনের কথা জানিয়ে মাহমুদ মাদানী বলেন, দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। নিম্ন আয়ের ও গরিব শ্রেণীর মানুষের জন্য এটা বড় কঠিন সময়। সারা দেশের এই লকডাউন চলাকালীন সময়ে তাদের পাশে থাকার স্বার্থে জমিয়ত তাদের সমস্তটা দিচ্ছে। কিন্তু তাদের সাধ্য সীমিত। তাই দেশের কল্যাণকামী ও ধনী শ্রেণীর সাহায্যে জমিয়ত একটি ত্রাণ তহবিল সংগঠনের ঘোষণা দিচ্ছে। যার মাধ্যমে দেশের সমস্ত অঞ্চলে বর্তমান পরিস্থিতিতে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়া হবে।

করোনা সংকটের বর্তমান পরিস্থিতিতে মুসলমান সকলের আকিদা-বিশ্বাস ঠিক রাখার আবেদন জানিয়ে মাহমুদ মাদানীর পক্ষ থেকে এ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এসময়ে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি-নিষেধাজ্ঞা সকলেই মেনে চলবেন। নিজেদের আমলের খামতি দূর করে বেশি বেশি তওবা এস্তেগফারের প্রতি মনোনিবেশ করবেন। ঘরদোর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখবেন। পাশাপাশি নিজেদের আকিদা বিশ্বাস ঠিক রাখার স্বার্থে সর্বাবস্থায় মনে এই বিশ্বাস লালন করবেন যে আল্লাহ তায়ালার হুকুম ব্যতিরেকে এর সংক্রমণ কারও হওয়ার নয় এবং তাঁর সন্তুষ্টি ব্যতিরেকে এর নিরাময়ও হবে না।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে একটি চিঠিও লিখেছেন জমিয়তে উলামা হিন্দের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাহমুদ মাদানী। ওই চিঠিতে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জমিয়তের ভাবনার কথা জানানো হয়।