নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ২০১৯ বাতিল না করলে লক্ষাধিক লোক নিয়ে অমিত শাহকে কলকাতায় পা রাখতে দেওয়া হবেনা বলে হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যের গ্রন্থগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। রবিবার ধৰ্মতলার রানিরাসমনি রোডে সিএএ এবং এনআরসি বিরোধী সমাবেশের ডাক দিয়েছিল জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ। বহু মানুষ সভায় এসেছিলেন। জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের রাজ্য সভাপতি মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী উপস্থিত বলেন, এই সংবিধান বিরোধী সিএএ বাতিল করতে হবে। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যদি না বাতিল করেন তাহলে আমরা অমিত শাহকে প্রয়োজনে শহরের বিমানবন্দরের বাইরে বেরুতে দেব না। এক ডাক দিলেই উনাকে থামাতে একলক্ষ মানুষকে জড়ো করবো শান্তিপূর্ণভাবে। আমাদের লড়াই গনতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণ। আমরা হিংসায় বিশ্বাস করি না। কিন্তু আমরা সিএএ ও এনআরসি-র প্রতিবাদ করবো।’


তৃণমূলের মন্ত্রী আরও বলেন, কলকাতা-সহ দেশব্যাপী চলা আন্দোলন দেখুন। বিজেপি-কে মানুষ প্রত্যাখান করেছে। ছাপান্ন ইঞ্চি ছাতির প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশের মানুষকে পথে নামিয়েছেন। ঘৃণা ও বিভেদের রাজনীতি দিয়ে দেশকে ভাগ করতে চাইছেন তিনি। কিন্তু দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হতে চায়, শান্তি চাই।
তিনি আরও বলেন, “দেখুন ওরা কীভাবে একটার পর একটা সিদ্ধান্ত মানুষের ঘাড়ে চাপিয়ে দিচ্ছেন। ওরা আলোচনা, সমঝোতায় বিশ্বাসী নয়। আমরা এটা কিছুতেই চলতে দেবো না। ব্রিটিশের বিরুদ্ধে লড়াই করেছি, আজও যেকোন অন্যায়ের বিরুদ্ধে পথে নামবো।
বিজেপিকে ‘বর্বর’,’নির্লজ্জ’ বলেও তিনি মন্তব্য করেন। শুধু সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী নন, জামায়াতে ইসলামী,জমিয়তে আহলে হাদিস সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা সিএএ-র বিরোধিতা করেন।