টিডিএন বাংলা ডেস্ক: মোদির ‘নতুন ভারত’ কেবল হিংসা ও ঘৃণায় পরিপূর্ণ, গুরগাঁয়ের মুসলিম বাড়িতে ঢুকে হিন্দুত্ববাদীদের হামলায় বিস্ফোরক কংগ্রেস। গুরগাঁওয়ে মহম্মদ সাজিদ নামক এক ব্যক্তির বাড়িতে হোলির দিন জোর করে বাড়িতে ঢুকে, সদস্যদের রক্তাক্ত করে দিল একদল দুষ্কৃতী।

হোলির দিন ক্রিকেট খেলায় এক পরিবারকে বেধড়ক পেটাল একদল দুষ্কৃতী। তাড়া করে ঘরে ঢুকে মাটিতে ফেলে রীতিমতো লাঠি এবং রড দিয়ে মেরে রক্তাক্ত করে দেওয়া হল তাঁদের। সোস্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসেন পুলিশ প্রশাসন। ভিডিও তে দেখা যাচ্ছে, বাড়ির মহিলারা, যুবকেরা আতঙ্কিত হয়ে ছাদে দরজা দিয়ে আছে। কিন্তু তাতেও রেহাই নেই। মোটা মোটা বাঁশ দিয়ে তাড়া করে এসে পেটাতে থাকে বাড়ির সদস্যদের।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা নাগাদ গুরুগ্রামের ভূপ সিংহ নগরের ঘটনা। অভিযুক্তদের মধ্যে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অন্যদিকে বিরোধীপক্ষ ইতিমধ্যেই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির দিকেও অভিযোগের আঙুল তুলেছে। এই নিয়ে মোদিকে একপক্ষ দোষারোপ করেছে কংগ্রেস।

ট্যুইটারে কংগ্রেসের তরফ থেকে সাধারণ ভারতীয় নাগরিকদের উপর এই ধরনের অত্যাচারের ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয় বলে জানানো হয়েছে । পাশাপাশি হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর যেন অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেন সেই দাবিও জানানো হয়েছে ।