টিডিএন বাংলা ডেস্ক: শুধুমাত্র ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানের জন্য গুজরাটে করোনা ভাইরাসে ৮০০ জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে, সোমবার এমনটাই অভিযোগ করেছে গুজরাট কংগ্রেস। চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি গুজরাটের আহমেদাবাদে কেন্দ্রের মোদি সরকার ও গুজরাটের বিজেপি সরকার মিলে আহমেদাবাদে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আর সেখান থেকেই গুজরাটে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে। এবং ৮০০ এরও বেশি লোকের মৃত্যুর জন্য দায়ী ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠান। এমনটাই অভিযোগ বিরোধী দল কংগ্রেসের।

গুজরাট কংগ্রেসের সভাপতি অমিত চাভদা বলেছেন, মেগা ইভেন্টের আয়োজনে একটি বিশেষ তদন্তকারী দলের (এসআইটি) মাধ্যমে স্বতন্ত্র তদন্তের জন্য তাঁর দল শিগগিরই গুজরাট হাইকোর্টে একটি আবেদন করবে।

তবে রাজ্য বিজেপি কংগ্রেসের সেই অভিযোগগুলি প্রত্যাখ্যান করে দাবি করে যে, বিরোধী দল এখন মিডিয়ায় সামনে রিপোর্টগুলিকে পাল্টানোর চেষ্টা করছে। বিজেপির আরও দাবি, করোনা ভাইরাস ছড়ানোর জন্য ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠান নয়, তাবলিগ জামায়াতের দিল্লি মারকাজ অনুষ্ঠান দায়ী।

২৪ ফেব্রুয়ারি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প আহমেদাবাদে একটি রোড শোতে অংশ নিয়েছিলেন, যেখানে হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। রোড শোয়ের পরে দুই নেতা গুজরাট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (জিসিএ) পরিচালিত মোতেরা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এক লাখেরও বেশি লোকের সমাবেশের আয়োজন করেছিলেন। সেই মেগা ইভেন্টটির নামকরণ করা হয়েছিল ‘নমস্তে ট্রাম্প’। ২০ মার্চ গুজরাটে প্রথম করোনভাইরাস রোগের খবর পেয়েছিল, যখন রাজকোটের এক পুরুষ এবং সুরত থেকে এক মহিলার নমুনা এই রোগের জন্য ইতিবাচক পরীক্ষা করেছিল।

উল্লেখ্য, ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানের পর ২৫ মে পর্যন্ত গুজরাটে করোনা সংক্রমণের কারণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৮৮ এবং আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৪,৪৬৮। তার মধ্যে বেশির ভাগই মৃত্যু হয়েছে আহমেদাবাদের বাসিন্দার।

চাভদা আরও অভিযোগ করেন, “যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানুয়ারিতেই করোনভাইরাস সম্পর্কে একটি সতর্কতা জারি করেছিল, কিন্তু তারপরেও রাজ্যের ও কেন্দ্রের বিজেপি সরকার নমস্তে ট্রাম্প অনুষ্ঠানের আয়োজনে করেছিল। যার ফলে মহামারীজনিত কারণে ৮০০ জনেরও বেশি লোক মারা গিয়েছেন”।

তিনি দাবি করেন যে এমনকি রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগও মহামারী সম্পর্কে ২২ জানুয়ারী একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল এবং রাজ্যের জেলা অফিসগুলিকে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেছিল। তিনি বলেন, সরকার যখন আগেই ঝুঁকি সম্পর্কে ভালভাবে জানত তখন কেন পিপিই কিট এবং ভেন্টিলেটর সংগ্রহ করতে পারেনি? এটি তাদের অপরাধমূলক অবহেলা ছাড়া কিছুই নয়।

চাভদা বলেন, “আমরা শীঘ্রই হাইকোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করব, কারণ আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে রাজ্যে করোনভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য দায়ী নমস্তে ট্রাম্প অনুষ্ঠান”।

তবে বিজেপি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তার অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে অভিহিত করে এবং বিরোধী দলকে এই কঠিন সময়ে রাজনীতিতে লিপ্ত হওয়া থেকে বিরত থাকতে বলেছে।

এবিষয়ে গুজরাটের বিজেপির মুখপাত্র ভরত পান্ড্য বলেন, “গুজরাটের লোকেরা জানেন যে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠান এবং করোন ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার মধ্যে কোনও মিল নেই। বরং গণমাধ্যম দেখিয়েছিল যে তাবলিগী জামায়াতের দিল্লির অনুষ্ঠানের পরে করোনা ভাইরাস কীভাবে এবং কোথায় ছড়িয়েছিল। এখন মিডিয়া এবং বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিরোধী দল কংগ্রেস ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলছে।” সুত্র- ইন্ডিয়া টুডে