টিডিএন বাংলা ডেস্ক: কাজ করতে গিয়ে দিল্লীতে হিংসার থাবায় আটকে পড়েছিলেন মুর্শিদাবাদের নওদার ১১ যুবক। টানা তিনদিন ঘরবন্দি হয়ে কার্যত না খেয়েই দিনগুজরান করতে হয়েছে। ফোনের উপর ফোন করে তাদের বাঁচানোর আকুতি। ঘরের ছেলেদের এহেন দশায় কার্যত আতঙ্কিত হয়ে উঠে পরিবার। জেলার দুই সাংসদকে জানানোর পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতেও উঠে আসে। অবশেষে বুধবার রাতেই তাদেরকে ট্রেনে চাপিয়ে বাড়ি ফেরত পাঠানোর উদ্যোগ নেন প্রশাসন। 

বৃহস্পতিবার সকালেই বহরমপুরের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী ফেসবুকে জানান, “দিল্লী দাঙ্গায় আটকে পড়া ১১ জন নওদার মানুষকে উদ্ধার করে গত রাতে দিল্লী- কলকাতা ট্রেনে উঠিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি, আতঙ্কিত পরিবারের সকলকে বলবো আপনাদের লোকেরা বাড়ি ফিরছে, চিন্তা নেই।” 

জানা গিয়েছে, গত দুই মাস আগে দিল্লীর শেলমপুর থানা এলাকার ঘোন্ডা চকে কাজে গিয়েছিলেন নওদা ওই ১১ যুবক। টানা তিনদিন ধরে একটি বাড়িতেই আটকে ছিলেন তারা ৷ সাহায্য চেয়ে সোশাল মিডিয়ায় ছবি পোস্টও করেন। তারপরেই উদ্বিগ্ন হয়ে উঠে পরিবার। বুধবার রাতেই ট্রেন ধরলেও বাড়ি না ফেরা পর্যন্ত কার্যত নওদার পরিবারগুলোর চোখেমুখে এখনও আতঙ্ক ছড়িয়ে রয়েছে।