মিজানুর রহমান, টিডিএন বাংলা: আজ আপনি রোহিত ভেমুলা, নাজিব আহমেদ কিংবা পায়েল তাদভিদের অবহেলা করছেন। তাঁদের ন্যায় বিচারের জন্য এগিয়ে আসছেন না। ফ্যাসিবাদী শক্তির বিরুদ্ধে সরব না হয়ে উপেক্ষা করছেন। তবে মনে রাখবেন এর পরবর্তীতে কিন্তু টার্গেট হতে পারে আপনার সন্তানও। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এভাবেই সরব হলেন নাজিব আহমেদের মা ফাতিমা নাফিস। এদিন তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, দেশে বুকে ঘটা রোহিত ভেমুলার ঘটনাকে যখন এড়িয়ে যান তখন আবার নাজিব আহমেদের ঘটনা ঘটে। আবার আপনি যখন নাজিব আহমেদ কে উপেক্ষা করেন তখন আরও একটি পায়েল তাদভির ঘটনা ঘটে। যখন আপনি পায়েল তাদভিকে উপেক্ষা করেন তখন ফাতিমা লাথিফের ঘটনা ঘটে। এখন আপনি ফাতিমা কে উপেক্ষা করছেন, পরবর্তী ঘটনাটা আপনার সন্তানের সঙ্গে ঘটতে পারে…। ফাতিমা নাফিস সবার ন্যায় বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

অন্যদিকে তিনি জেএনইউ তে ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ছাত্র আন্দোলন কে সমর্থন জানিয়ে ছাত্রদের পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, জেএনইউ তে যে জুলুম হচ্ছে আমার নাজিব আজ জেএনইউ তে থাকলেও, সে অবশ্যই এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াত। আমাদের মত সাধারণ বাড়ি থেকে আসা সেই সব ছাত্ররা যারা জেএনইউ তে থেকে ভালো শিক্ষা নিতে চাই তাদেরকে বিভিন্ন ভাবে বাধা দান করা হচ্ছে। অনুগ্রহ করে জেএনইউ কে ব্যবসায় পরিণত করবেন না, নয়লে আমাদের সন্তানরা কোথায় যাবে? বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইতিমধ্যে বড়লোকদের খামার বাড়ি হয়ে গেছে। সেখানে গরীব ঘরের ছেলেমেয়েরা যাওয়ার সময় ভয় পায়।

তিনি আরও বলেন, সরকারকে প্রতি অনুরোধ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত দলের ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে একটা সমাধান করা জন্য। কোন সরকার সব চিরকাল থেকবেনা, কোন রাজা তার বয়সের চেয়ে বেশি বাঁচতে পারে না। হিন্দুস্তান কোন জমির টুকরা নয়, এই ছেলেমেয়েরায় কাল দেশের বড় বড় অফিসার হয়ে যাবে, নেতা হয়ে যাবে, দেশকে নোবেল পুরস্কার দেবে এবং দেশের নাম উজ্জ্বল করবে। ইনশাল্লাহ দেশের মুসলিমরা সবসময় তাদের সঙ্গে থাকবে। তিনি সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন, এই মায়ের আশীর্বাদ তোমাদের সবার সাথে আছে, নিজেকে কখনো একা মনে করো না।

উল্লেখ্য, তিনবছর আগে ২০১৬ সালের ১৫ অক্টোবর রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হয়েছিলেন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র নাজিব আহমেদ। আজও তার কোনো সন্ধান মেলেনি। ক্যাম্পাস থেকে কিভাবে একজন ছাত্র নিখোঁজ হয়ে গেল আজও তার কোনো সদুত্তর মেলেনি। নিখোঁজের পর থেকে দেশজুড়ে বিভিন্ন সংগঠনের সাথে লাগাতার আন্দোলন করেছেন নাজিবের মা নাফিস ফাতিমা। দিল্লী এবং কেদ্র সরকারের কাছে একাধিকবার দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁর ছেলে নাজিব কে পাওয়ার আশায়। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই নাজিব আহমেদকে খুজতে ব্যর্থ হয়েছে। ন্যায় বিচারের আশায়, নাজিব কে খুঁজে পাওয়ার আশায় আজও অপেক্ষায় ফাতিমা নাফিস। আর কোনও মায়ের কোল খালি না হয় তাঁর জন্য একাধিকবার দিল্লীর পথেও নেমেছেন ফাতিমা নাফিস। কিন্তু কোনও লাভ হননি। প্রশাসনের হাতে বার বার হেনস্থা হতে হয়েছে তাঁকে। এখন শুধু প্রশ্ন, আর কি মা ফাতিমা নাফিসের কোলে ফিরে আসবে নাজিব? কখনও কি খুঁজে পাওয়া যাবে নাজিবকে?