টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দেশে একের পর এক ধর্ষণকান্ড ঘটেই চলেছে। উন্নাও থেকে শুরু করে হায়দ্রাবাদ। সমস্ত জায়গায় নরপিশাচদের শিকার হচ্ছেন নারীরা। এমনকি ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত‍্যাও করা হচ্ছে। কিন্তু দেশের বুকে ধর্ষণের এতো বাড়বাড়ন্তের জন্য পর্ন সাইটগুলোকেই দায়ী ক‍রলেন বিহারের মুখ‍্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। তাঁর দাবি, পর্ন সাইটের বাড়বাড়ন্তের জন্যই বাড়ছে যৌনতা সংক্রান্ত অপরাধ এবং ধর্ষণ।

দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ধর্ষণের বাড়বাড়ন্ত প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মহিলাদের উপর যে যৌন হেনস্তা বা অত্যাচার করা হচ্ছে, তার মূল কারণ হল পর্ন সাইটের সহজলভ্যতা। পর্ন সাইটগুলিতে ধর্ষণের ভিডিও-ও থাকে। ধর্ষকরা হয়তো নিজেই সেই ভিডিও তুলে পোস্ট করে। আমি কেন্দ্রের কাছে অনুরোধ করব এমন সমস্ত ওয়েব সাইট নিষিদ্ধ করতে, যাতে যৌন উত্তেজনামূলক ভিডিও দেখানো হয়।” পর্নোগ্রাফি নিষিদ্ধ করা নিয়ে ভারতে বিতর্ক বহুদিনের। এর আগে ভারতে অধিকাংশ পর্ন সাইট বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল কেন্দ্র সরকারও। কিন্তু, ঘুরপথে এখনও সমস্ত প্রথম সারির পর্ন সাইটই খোলা যায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে।

যদিও পর্ন সাইটের জন্যই ধর্ষণ হচ্ছে, নীতীশের এই যুক্তি মানতে নারাজ নেটিজেনরা। তাঁরা উলটে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীকেই তোপ দাগছেন। নেটিজেনরা বলছেন, পর্ন সাইটের মতোই ঘনিষ্ঠ দৃশ্য দেখানো হয় সি গ্রেডের ভোজপুরী ছবিতেও। নীতীশের উচিত, আগে ভোজপুরী ছবি তৈরি বন্ধ করা। তাছাড়া একজন মুখ্যমন্ত্রী হয়ে নীতীশ কী করে এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করলেন, সে প্রশ্নও তুলছেন অনেকে।