টিডিএন বাংলা ডেস্ক: রাষ্ট্রপতি ভবনে নরেন্দ্র মোদির দ্বিতীয় মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার জন্য দিল্লি পৌঁছে অনুষ্ঠানে যেতে ইতস্তত করেন বিহারে বিজেপির জোটসঙ্গী নিতিশ কুমার ও জেডিইউ সাংসদ। নীতীশের আশা ছিল শেষ পর্যন্ত হয়তো অমিত শাহ তাঁর দাবি মেনে নিয়ে, একজনের বদলে দুজনকে মন্ত্রিসভায় জায়গা করে দেবেন। নীতিশের দলের মন্ত্রিসভার অনুপস্থিতি নিয়ে বিজেপি নেতা গোপাল নারায়ণ সিং প্রকাশ্যে মুখ খুলে জানিয়ে দিলেন, নিতিশ কুমার একজন স্বার্থপর।

গোপাল সিং বলেন, নীতীশ কেবল নিজের ভালোটা ভাবতে শিখেছেন। নিজের স্বার্থ দেখে তবেই কোন সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। তিনি একজন বড় ধরনের স্বার্থপর ব্যক্তি। আরও এক ধাপ এগিয়ে বিজেপি নেতা আরও বলেন, নীতিশ এর আগে বিজেপির সাহায্য নিয়ে ভোটে জিতে সাতবছর সরকার চালিয়েছে। কিন্তু যখন বুঝতে পারলেন একাই সামলাতে পারবেন, তখনই বিজেপিকে সরিয়ে দিলেন।

এবার নতুন মন্ত্রিসভায় যাওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছিল প্রতিটি জোট শরিক থেকে একজন করে নেওয়া হবে। কেউ আপত্তি করেনি। কিন্তু নীতীশের দাবি, দুজনকে মন্ত্রিসভায় ঠাঁই দিতে হবে। সেই দাবি পূরণ না হওয়ায় মন্ত্রী সভা বর্জন করে বিহারের মানুষদের উৎসবের মেজাজ নষ্ট করতে চাইলেন নীতীশ।

যদিও নীতীশ পরবর্তীতে জানিয়েছেন, তারা জোট শরিক হিসাবে রয়েছেন, এর আগেও মন্ত্রী সভায় ছিল না জেডিইউ। এটা বড় কোনো ইস্যু নয়। উল্লেখ্য, এবার বিহারে লোকসভা ভোটে জেডিইউ ১৬ টি আসন পেয়েছে, বিজেপি জয়ী হয়েছে ১৭ টি আসনে।