টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দেশে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বেড়েই চলেছে। যদিও মৃত্যুর হার কম বলে জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে এই পরিস্থিতিতে করোনা মোকাবিলায় আটঘাট বাধছে কেন্দ্র। এটা করতে গিয়ে নতুন কোন সরকারি প্রকল্পের কথা ভাবছে না কেন্দ্রীয় সরকার। শুক্রবার স্পষ্টভাবে এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

গত ২৫ শে মার্চ থেকে সারাদেশে চলছে লকডাউন। পঞ্চম দফার লকডাউন শুরু হয়েছে ১ জুন থেকে। তবে এখন লকডাউন হলেও বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেয়া হয়েছে। লকডাউন এর মধ্যেও কোভিড-১৯ সংক্রমণকে রোখা যায়নি।এই পরিস্থিতিতে আপাতত করনা সংকটের মোকাবিলা প্রধান লক্ষ্য সরকারের। তাই নতুন করে আর সরকারি কোনো প্রকল্প ঘোষণা করার কথা ভাবছে না অর্থমন্ত্রক। সেই কারণে সমস্ত মন্ত্রককে ইতিমধ্যেই নির্দেশ দেয়া হয়েছে নতুন কোন প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দের জন্য তারা যেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর কাছে কোন সুপারিশ না পাঠায়। অর্থ মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে,কেবলমাত্র প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা এবং আত্মনির্ভর ভারতের নীতিমালার আওতায় যে যে ঘোষণা গুলি করা হয়েছে, সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে সেগুলির পিছনেই এখন খরচ করার অনুমতি দেয়া হবে। অন্য কোন প্রকল্পের ক্ষেত্রে বরাদ্দ করা হবে না অর্থ। এদিন এমনটাই জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।
অর্থ মন্ত্রকের তরফে এদিন এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনা মহামারীর পরিপ্রেক্ষিতে সাধারণ মানুষের কাছে এখন টাকার খুবই প্রয়োজন। তাই এই পরিস্থিতিকে অগ্রাধিকার দেওয়ার জন্যই নতুন কোনো প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দের কথা ভাবা হচ্ছে না। এমনকি বাজেট আওতায় থাকা অনুমোদিত প্রকল্প গুলিও আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করে দেয়া হয়েছে। তবে বিশেষ কোনো ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম হলে সেক্ষেত্রে অনুমোদনের বিষয়টি ভেবে দেখতে পারে অর্থমন্ত্রক।