টিডিএন বাংলা ডেস্ক: কোনো শাহ সুলতান আমাদের উপর হিন্দি চাপানো কিংবা দেশের বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের ভাঙন ধরাতে পারবে না। সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করে এমনই মন্তব্য করলেন অভিনেতা তথা রাজনীতিবিদ কমল হাসান।নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে সরকারের উদ্দেশে তিনি কড়া বার্তা দিয়ে বলেন, ‘জোর করে হিন্দিকে চাপিয়ে দেওয়া হলে তা কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না ৷ তামিল আমাদের মাতৃভাষা ৷ বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের ভারত কারোর একচেটিয়া সম্পত্তি নয়।’ তারপরে তিনি আরো একধাপ এগিয়ে গিয়ে বলেন, হিন্দি ভাষা চাপানোর চেষ্টা হলে মাতৃভাষা রক্ষার্থে জাল্লিকাট্টুর থেকেও বড় আন্দোলন হবে। তার কথায়,আমরা ভারতবাসী। সকল ভাষাকেই সম্মান করি।

উল্লেখ্য, এক দেশ এক ভাষা নিয়ে বারবার বিতর্ক তৈরি হয়েছে গোটা দেশে। কেন্দ্র সরকার এর আগে একাধিকবার হিন্দি ভাষা বাধ্যতামূলক করার চেষ্টা করলেও বিভিন্ন রাজ্য বিশেষ করে দক্ষিণী রাজ্যগুলো তার তীব্র বিরোধিতা করেছে। ফলে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে কেন্দ্র সরকার। কিন্তু সম্প্রতি অমিত শাহ এক ট্যুইট লিখেন, “ভারত বহু ভাষাভাষীর দেশ। সব ভাষারই নিজস্ব গুরুত্ব থাকলেও দেশের একটা সাধারণ ভাষা থাকা জরুরী যা গোটা বিশ্বের কাছে পরিচয় বহন করবে। ” শাহের এই মন্তব্যের পর থেকেই দেশজুড়ে ফের বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।