টিডিএন বাংলা ডেস্ক: জনতার সামনে পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পরাভেজ মুশারফের দেহ ৩ দিন ধরে ঝুলিয়ে রাখার নির্দেশ দিল পাক আদালত। এমন চাঞ্চল্যকর নির্দেশে অবাক সে দেশের জনসাধারণ। দেশদ্রোহিতার মামলায় পারভেজ মুশারফকে ফাঁসির সাজা আগেই শুনিয়ে দিয়েছে পাকিস্তানের বিশেষ আদালত। কিন্তু আদালত আবার জানিয়ে দিয়েছে, মুশারফ যদি মৃত্যুদণ্ডের আগেই মারা যান, তাহলে তাঁর দেহ ইসলামাবাদের ডি-চকে ঝুলিয়ে রাখা হবে ৩ দিন ধরে। কেন বিচারক এমন নির্দেশ দিয়েছেন তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

প্রসঙ্গত, ইসলামাবাদের ডি চক পাকিস্তান সংসদের এক্কেবারে সামনেই। আর সেখানে দেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের মৃতদেহ ৩ দিন ধরে ঝুলিয়ে রাখা থাকবে , এমন নির্দেশকে পাকিস্তানের অনেকেই অসংবিধানিক বলে মনে করছেন। গোটা বিষয়টি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী ইমরানকে অবহিত করেছেন সেদেশের প্রধানমন্ত্রীর আইনজীবী। ঘটনায় পাক প্রধান মন্ত্রীর অফিসও স্তম্ভিত।

পাকিস্তানে এমন আইনি নির্দেশ প্রথম নয়। এর আগে এক সিরিয়াল কিলারকে সাজা শোনাতে গিয়ে পাকিস্তানের কোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল , তার দেহ জনতার সামনে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। তারপর তার পরিবারের সামনে অপরাধীর দেহ ১০০ টুকরে করে কাটতে হবে। যদিও সেই নির্দেশ কার্যকরী হয়নি।

প্রসঙ্গত , পাকিস্তান আদালতের রায়ের বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই দুবাইতে রয়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট মুশারফ। তিনি সেখানে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আর দেশে তিনি ফিরবেন কিনা তা নিয়ে রয়েছে অনিশ্চয়তা। এমন অবস্থায় পাকিস্তান আদালত জানিয়েছে, যদি পাকিস্তানের ফাঁসির সাজা বহালের আগেই মুশারফের মৃত্যু হয়, তাহলে তাঁর মৃতদেহ ঝুলিয়ে রাখতে হবে ডি চকে।