টিডিএন বাংলা ডেস্ক : বিজেপি শাসিত আসামের দিসপুরে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ২০১৬-এর বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। ৭০টি সংগঠনের যৌথ বিক্ষোভে অবিলম্বে ওই বাতিল করার দাবি জানানো হয়েছে। অন্যথায় মুখ্যমন্ত্রী সর্বাননদ সোনোয়ালকে পদত্যাগ করা সহ সরকারকে উৎখাত করার হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে। বিক্ষোভ সমাবেশে আসাম সরকারকে ‘বিশ্বাসঘাতক ও গণশত্রু’ বলেও আখ্যা দেয়া হয়েছে।

কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতির উপদেষ্টা অখিল গগৈ বলেন, ‘নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে সাধারণ মানুষের প্রবল আপত্তি ও আন্দোলনকে গুরুত্ব না দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী দিল্লি ও নাগপুরের কথায় উঠাবসা করছেন। হিন্দু বাংলাদেশিদের নাগরিকত্ব দেয়ার স্বার্থে সরকার অসমিয়া জাতিকে বলির কাঠে ঠেলে দিচ্ছে।’

তাঁর দাবি, সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে ওই বিল গৃহীত হলে বিজেপি-আরএসএসেরও শীতকাল চলে আসবে। আসাম থেকে উৎখাত করে তাঁদের বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

আসাম জাতীয়তাবাদী ছাত্র যুব পরিষদের সভাপতি পলাশ লাহন বলেন, মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির যে অজুহাত গেরুয়া শিবির তুলে ধরছে তা ঠিক নয়। এটা ঠিক যে মুসলিম জনসংখ্যা বাড়ছে। কিন্তু সেজন্য বাংলাদেশ থেকে হিন্দুদের এনে মুসলিম জনসংখ্যার সমান সমান করার বিজেপি-আর এসএসের যুক্তি মেনে নেওয়া যায় না। অসাংবিধানিক ওই বিল বাতিল না হলে ভয়ঙ্কর পরিণতি হবে!