টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আবার সেই যোগীরাজ‍্য উত্তরপ্রদেশ। গোয়ালে ঢুকে লাগাতার একের পর এক গরুকে ধর্ষণের দায়ে রাজকুমার নামের এক ব‍্যক্তিকে গ্ৰেফতার করা হয়েছে। সিসিটিভি দেখে অভিযুক্ত কে চিহ্নিত করে বেধড়ক মার দেওয়া হয়।

নৃশংস এই ঘটনায় অভিযুক্ত উত্তরপ্রদেশের অযোধ‍্যার নবাবগঞ্জের গোন্ডার বাসিন্দা। অভিযুক্ত রাজকুমারের ঘনঘন গোয়ালে যাওয়ায় সন্দেহ দানা বাঁধে। কর্তালিয়া বাবা আস্রমের স্বেচ্ছাসেবীরা CCTV-র ফুটেজ খতিয়ে দেখতে গিয়ে তাঁদের চোখে পড়ে ভয়ানক সেই দৃশ্য। দেখা যায়, গোয়ালে গোরুদের ধর্ষণ করছে এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি। এরপরই গোয়ালে নজরদারি শুরু করেন স্বেচ্ছাসেবীরা। চলতি মাসের শুরুর দিকে অভিযুক্ত ফের ওই গোয়ালে গিয়ে অবলা জীবদের যৌন হেনস্থার চেষ্টা করে। তখনই হাতেনাতে ধরা পড়ে যায় সে।

রাজ কুমারকে বেধড়ক পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। জেরায় রাজ কুমারের দাবি, সে যা করেছে সবই মদ্যপ অবস্থায় করেছে। তার কিছুই আর মনে নেই। তাকে মারার বিষয়টিই শুধু তার মনে আছে। কর্তালিয়া বাবা আশ্রমের এক পুরোহিত জানিয়েছেন, CCTVর ফুটেজে দেখা গিয়েছে পরপর সাতটি গোরুকে ধর্ষণ করেছে ওই ব্যক্তি।