টিডিএন বাংলা ডেস্ক : রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে কেন্দ্রের সংঘাত নিয়ে মুখ খুললেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গভর্নর মনমোহন সিং। অর্থমন্ত্রক এবং আরবিআই-র সম্পর্ক নিয়ে তার চেয়ে অভিজ্ঞ ব্যক্তি সম্ভবত আর কেউ নেই। কারণ তিনি দীর্ঘদিন অর্থমন্ত্রক এবং আরবিআই-র সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। দশ বছর ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তাই এই বিষয়ে মনমোহনের মন্তব্যকে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আরবিআই বনাম কেন্দ্রের এই বিতর্কে মুখ খুলে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির চাপ কিছুটা কমিয়েই দিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর কখনোই অর্থমন্ত্রীর চেয়ে বড় হতে পারে না। মেয়ে দমন সিংয়ের লেখা একটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আরবিআই এবং সরকারের সম্পর্ক লেনদেনের। সবসময় সব কাজ সরকারকে জানিয়েই করতে হয়। কারণ আর্বিআই গভর্নর কখনোই অর্থমন্ত্রীর চেয়ে বড় হতে পারেন না। আর যদি অর্থমন্ত্রী কোনও সিদ্ধান্ত নেন, তাহলে আমার মনে হয়না রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর তা অমান্য করতে পারবেন। যদি না তার চাকরি খোয়ানোর ইচ্ছে থাকে।’

মনমোহন সিংয়ের এই বক্তব্যের কাটাছেঁড়া শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। অনেকে বলছেন, এই বক্তব্যের মাধ্যমে হয়তো ঘুরিয়ে অরুণ জেটলির অবস্থানকেই সমর্থন করলেন মনমোহন। এইটুকু পরিষ্কার যে আরবিআই-র পাশে দাঁড়ালেন না মনমোহন।

আর্থিক টানাপোড়েনের কারণেই রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছে কেন্দ্র। আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেলের পদত্যাগ নিয়েও জল্পনা শুরু হয়েছে। কিছুদিন আগে প্রকাশ্যেই কেন্দ্রের বিরুধ্যে আরবিআইর কাজে হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলেছিলেন ডেপুটি গভর্নর বিরল আচার্য। এরপর খোদ অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি প্রকাশ্যে উর্জিত প্যাটেলের সমালোচনা করেন।