টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ বিহার ও উত্তরপ্রদেশে একটানা ভারি বর্ষণের ফলে তৈরি হয়েছে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি। যার ফলে গত ৪ দিনে ৭২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ইতিমধ্যেই ভারি বর্ষণের ফলে বিহারের ১৫ টি জেলাতে আবহাওয়া দফতর তরফে লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বাকি জেলা গুলতেও সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।  

গত শনিবারই উত্তর প্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের। বৃহস্পতি ও শুক্রবার রাজ্যজুড়ে মৃত্যুর খবর মেলে ৪৭ জনের। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, শুক্রবার সে রাজ্যে বৃষ্টি হয় ১৭০০ শতাংশ যা স্বাভাবিকের থেকে বহুগুন বেশি। প্রয়াগরাজে ১০২.২ মিলিমিটার, বারাণসীতে ৮৪.২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। বছরে স্বাভাবিক যা বৃষ্টি হয় তার থেকে অনেক বেশি বলে জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর। মৃতদের পরিবার পিছু ৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

টানা দুই দিন ধরে ভারী বৃষ্টিতে বিহারে আরও শোচনীয় পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। পটনা ও বিহারের অন্যান্য জেলার প্রত্যন্ত এলাকা বন্যায় ভেসে গেছে বলে জানা যাচ্ছে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে প্রশাসনের আধিকারিকদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। শুক্রবার ভারী বর্ষণে জনজীবন স্তব্ধ হয়ে যায় পটনায়। এ দিন ১৩ ট্রেন বাতিল করা হয়। ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টানা বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। মঙ্গলবার পর্যন্ত স্কুল কলেজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন।