টিডিএন বাংলা, ১৭ই ডিসেম্বর : নোটবাতিলের ৩৭ দিন পরও অবস্থা স্বাভাবিক হয়নি। ব্যাঙ্ক এবং এটিএমের বাইরে এখনো লম্বা লাইন অন্যদিকে কিছু লোকের কাছে কোটি কোটি টাকার নতুন নোট উদ্ধার হচ্ছে। সুপ্রিম কোর্ট এইবার এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে প্রশ্ন করেছে। নোটবাতিলে জনগনকে অন্তর্বর্তীকালীন মুক্তি আবেদনের একটি শুনানি করতে গিয়ে কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে কিছু প্রশ্ন করে করে কোর্ট। কোর্ট প্রশ্ন করে কিছু লোকের কাছে এত পরিমানে নতুন টাকা আসছে কীভাবে ? ব্যাঙ্ক গুলিকে নতুন টাকা দেওয়ার ব্যাপারে সরকারের নীতি কী ?

সুপ্রিমকোর্ট বলে সপ্তাহে ২৪ হাজার টাকাও পাচ্ছেনা জনগন। সরকারের উদ্দেশ্যে কোর্ট এই বলে প্রশ্ন করে যে, হাসপাতালে পুরাতন নোট নেওয়ার ব্যাপারে কেন মঞ্জুরি দেওয়া হচ্ছেনা ? কোর্টের প্রশ্নের জবাবে এটর্নি জেনারেল মুকুল রোহাতগি বলেন, “আসন্ন কিছু দিনের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে। কিছু ব্যাঙ্ক ম্যানেজার উল্টোপাল্টা কাজ করছে। সরকার দোষীদের তদন্ত করছে।” তিনি আরো বলেন, এখনো পর্যন্ত ৫ লাখ কোটির নতুন কারেন্সি বাজারে ছাড়া হয়েছে। হাসপাতালে পুরাতন নোটের প্রশ্নে সরকার পক্ষ জানায়, এর সিদ্ধান্ত কোর্ট নিক।