টিডিএন বাংলা ডেস্ক: মোদীর আমলে সন্ত্রাসবাদ বেড়েছে। গোরক্ষার নামে হত্যা বেড়েছে, বেকারত্ব বেড়েছে-এই কারণে বিশাখাপত্তমের মঞ্চ থেকে মোদী হটানোর ডাক দিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, চায়েওয়ালা বলে এসেছিলেন, এখন চৌকিদার হয়ে গেলেন। চন্দ্রবাবু নায়ডুর সমর্থনে এদিন অন্ধ্রপ্রদেশে আসেন মমতা।

তাঁর কথায়, এটা বিশেষ নির্বাচন। ভেবে চিন্তে ভোট দিতে হবে। চন্দ্রবাবু নায়ডুর পক্ষে সওয়াল করতে গিয়ে তিনি বলেন, অন্ধ্রপ্রদেশের সঙ্গে তাঁর নাম জুড়ে গেছে। তিনি রাজ্যের জন্য অনেক কিছু করেছেন। এঁরাই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন।

মোদীকে নিশানা করে মমতা বলেন, দেশের দুর্ভাগ্য তিনি প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেছেন। এঁরা সবাইকে ধমকে চমকে রাখেন। আগামী দিনে তাঁদের মিথ্যাচার চলবে না। চায়েওয়ালা চৌকিদার হয়ে গেলেন। তাঁর কথায়, ইনি মিথ্যে কথার চৌকিদার, ওনার সময়ে সবচেয়ে বেশি কৃষক মারা গেছে। আজ পর্যন্ত মোদী সাংবাদিক বৈঠক করেননি বলে অভিযোগ মমতার।

মমতা বলেন, ৫৬ ইঞ্চি ছাতি নিয়ে মোদী মিথ্যের পর মিথ্যে বলে যান। দেশের নেতা গান্ধীজি, নেতাজি, মৌলানা আবুল কালাম আজাদের মতো হওয়া উচিত। নোটবন্দির সময় বলেছিলেন সন্ত্রাসবাদ হবে না। কিন্তু তাঁর সময় সন্ত্রাসবাদ বেড়েছে। দেশকে বাঁচাতে বিরোধীদের ভোট দেওয়ার পক্ষে জোর সওয়াল করেন মমতা।