টিডিএন বাংলা ডেস্ক : মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গিয়েছিল ছেলের। ১৬ বছর বয়সী তরুণ ছেলের এই নির্মম মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি বাবা। তাই রাস্তায় খানাখন্দ দেখলেই সেখানে সংস্কার শুরু করছেন তিনি। এই কাজটি তিনি করছেন প্রায় তিন বছর ধরে।

২০১৫ সালের ২৮ জুলাই মুম্বাইয়ের যোগেশ্বরী- ভিখরোলী লিঙ্ক রোডে দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছিল দাদরাও ভিলহোরের ছেলে। পানিতে ডুবে থাকা একটি গর্তে মোটরসাইকেল পড়ে যাওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ওই দুর্ঘটনার পর তিনি শপথ করেন সড়কে কোনো গর্ত থাকতে দেবেন না। সেই থেকে আজ পর্যন্ত তিনি সড়কে ৫৫৬টি গর্ত মেরামত করেছেন। তার এই কাজে বাকিদেরও এগিয়ে আসার আহ্বানও জানিয়েছেন দাদারাও।

তিনি মনে করেন, মাত্র এক লাখ মানুষ যদি গর্ত ভরাট করার দায়িত্ব নেন, খুব তাড়াতাড়ি গোটা দেশের রাস্তা গর্তমুক্ত হবে।