টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দুশোর বেশি মুসলিম ঝুপড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল খোদ যোগী রাজ্যের পুলিশের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মিরাট জেলায়। জবরদখল উচ্ছেদের নামে মাছেরান বস্তির দুশোর বেশি মুসলিম পরিবারে আগুন লাগিয়ে অভিযোগ করেন স্থানীয়রা। আর এই অভিযোগ সরাসরি পুলিশের দিকেই।

পিটিআই রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, বিগত ৭ তারিখে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এবং স্থানীয় পুলিশের যৌথ উদ্যোগে উচ্ছেদ অভিযান চালানোর ঠিক পরেই বস্তিতে আগুন লেগে যায়। কিভাবে আগুন লেগেছিল ,কে বা কারা এই ঘটনায় জড়িত এই নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েই গেছে । কিন্তু স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন এই আগুন পুলিশ লাগিয়েছে।

হঠাৎ বস্তিতে দাউদাউ করে জ্বলতে দেখা যায়। ক্রমেই আগুনের লেলিহান শিখা একের পর এক ঘরকে গ্রাস করতে থাকে। চারিদিকে শিশু,মহিলা, লোকেরা ছোটাছুটি করতে থাকে। ঘন কালো ধোঁয়ায় ভরে গেছে যায় মাছেরান বস্তির আকাশ।

এবিষয়ে সমাজকর্মীরা প্রশাসন ও মিডিয়ার উপর ক্ষুদ্ধ। প্রশাসনের তরফ থেকে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি এবং গদি মিডিয়া বিষয়টিকে তুলে ধরেননি। শুধু তাই নয় আসল দোষীদের কোন শাস্তি না দিয়েই সন্দেহের বশে ছয়জন মুসলিম ব্যাক্তিকে আটক করেছে পুলিশ, এমন অভিযোগও উঠেছে । যদিও পুলিশের তরফে আগুন লাগানোর অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।