টিডিএন বাংলা ডেস্ক: করোনায় মৃত্যু হয়েছে মায়ের। তাই মায়ের মৃতদেহ নিলো না ছেলে। ১০০ মিটার দূরেই দাঁড়িয়ে থাকলো পরিবার। চোখের সামনেই পড়ে থাকলেও কেউ মৃতদেহ না নেওয়ায় অবশেষে পাঞ্জাবের লুধিয়ানার শিমলাপুর গ্রামের ওই মহিলার মৃতদেহ দাহ করলো প্রশাসন। সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, অসুস্থ অবস্থায় সসম্প্রতি কদিন আগেই পাঞ্জাবের একটি একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওই মহিলাকে। তারপরেই করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু তার। সমস্ত রকম
সাবধানতা অবলম্বন করেই পরিবারের হাতে দেহ তুলে দিতে চেয়েছিল হাসপাতাল। কিন্তু মৃত দেহ নিতে অস্বীকার করল ছেলে। কিন্তু কেউ না নেওয়ায় অবশেষে নিজেরাই অন্তিম সংস্কারের ব্যবস্থা করে প্রশাসন। শুধু তাই নয়, স্বশানের ১০০ মিটার দূরত্বেই দাঁড়িয়ে থাকে পরিবার।