টিডিএন বাংলা ডেস্ক : শিক্ষাব্যবস্থার করুণ অবস্থার আরও একটি ছবি উঠে এলো যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশের একটি স্কুলে। যেখানে শিক্ষক না থাকায় শিক্ষকতা করতে দেখা গেল স্কুলের রাঁধুনিকেই। যোগীর রাজ্যের হারদোইয়ের মাধবগঞ্জে একটি প্রাইমারি স্কুলের গেটের বাইরে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে ছিল ছোট ছোট ছাত্রছাত্রীরা। সোমবার সকাল ৮টা নাগাদ স্কুলে গিয়ে ছাত্রছাত্রীরা দেখে গেট বন্ধ। কারণ স্কুলের শিক্ষক ও কর্মীরা স্কুলে অনুপস্থিত।

কিছুক্ষণ পর বাচ্চারা ফিরে যাওয়া শুরু করে। তখনই স্কুলে পৌঁছান স্কুলের দুই রাঁধুনি চিমাদেবী ও তারাবতী। বাচ্চাদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে তারাই ওদের স্কুলের বাইরে বসতে দেন। বাচ্চারা দুষ্টুমি করতে শুরু করলে তাঁদের চুপ করাতে পড়াতেও শুরু করেন দুই রাঁধুনি। প্ৰথমে কথা না শুনলেও পরে তাঁদের কথা শোনে ছাত্রছাত্রীরা। তিন ঘণ্টা এভাবেই শিক্ষকদের আসার অপেক্ষা শেষে ফিরে যান রাঁধুনি ও ছাত্রছাত্রীরা।

এব্যাপারে গ্রাম প্রধান রাম মহেশ জানান, ‘স্কুলের প্রিন্সিপাল সুধীর কুমার, সহকারী শিক্ষক শিল্পী ও জিতেন্দ্র নিয়মিত স্কুলে যান না।’ তিনি নিজেও একদিন ওই স্কুলের বাইরে ১১টা পর্যন্ত দাঁড়িয়ে ছিলেন বলে জানান। সেদিনও শিক্ষক না আসায় ফিরে যেতে হয় ছাত্রছাত্রীদের। গোটা ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়ে হারদোই প্রাথমিক শিক্ষা দফতরের আধিকারিক হেমন্ত রাও বিশ্বাস আশ্বাস দিয়েছে, দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।