টিডিএন বাংলা ডেস্ক : লোকসভা নির্বাচনের আগে উচ্চবর্ণের মানুষদের মনজয় করতে চাকুরী ও শিক্ষা ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ সংরক্ষণ এর ব্যবস্থা করে বিল এনেছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। আর সেই বিলকে অন্ধের মতো সমর্থন করেছে বিরোধীরাও। এবার সেই সংরক্ষণ এর বিরোধিতা করে মাদ্রাজ হাইকোর্টে মামলা করলো ডিএমকে। শুক্রবার ডিএমকে’‌র রাজ্যসভার সাংসদ আরএস ভারতী এই সংরক্ষণের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে রিট পিটিশন দায়ের করেন। মোদি সরকারের সংরক্ষণ নীতির বিরোধিতা করে ইতিমধ্যেই দেশের সর্বোচ্চ আদালতে মামলা করেছে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ।  তার ঠিক পরেই কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ও তাদের রাজনৈতিক হাতিয়ারের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থানে গেল ডিএমকে। লোকসভা ও রাজ্যসভাতেও এই বিলের জোরদার বিরোধিতা করেছিল ডিএমকে সাংসদরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিল পাস হয়ে যাওয়ায় মূলত এবার আদালতের দ্বারস্থ হলেন তারা।
         উল্লেখ্য , ইতিমধ্যেই ১০ শতাংশ সংরক্ষণ বিল সংসদে পাশ হয়েছে। বিলে সই করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ  ৫০ শতাংশের বেশি সংরক্ষণ করা যাবে না। কেন্দ্রের এই দশ শতাংশ সংরক্ষণ আসলেই ৫০ শতাংশ এর মধ্যেই ? নাকি মোট ৬০ শতাংশ সংরক্ষণ? তা নিয়ে ধোঁয়াশায় সব পক্ষ। এই নিয়ে আদালতে রিট পিটিশন দায়ের করেছে ডিএমকে।