টিডিএন বাংলা ডেস্ক: করোনা ভাইরসাকে ঠেকাতে গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশজুড়ে ২১ দিনের লকডাউনের ঘোষণা করেন। অর্থ-খাদ্য ও থাকার জায়গার অভাবে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে দেশের জনগণ। মানুষের বেঁচে থাকার অর্থ-খাদ্যের ব্যবস্থা করার দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে, এমনটাই দাবি এসইউসিআই-র। তাঁরা তাঁদের মুখপত্র গণদাবী-তে এই দাবি জানায়।

জাতির উদ্দেশ্যে ২৪ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের উপর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে এসইউসিআই-এর সাধারণ সম্পাদক প্রভাস ঘোষ বলেন, প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে যে ভয়াবহ অবস্থার কথা বলেছেন তা বাস্তব। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে দেশবাসী আশা করেছিল টেস্ট কিট নিয়ে গুরুতর সমস্যা সমাধানে তিনি কিছু ব্যবস্থার কথা বলবেন, যার কিছুই ভাষণে নেই। যে দেশে এমনিতেই গরিব মানুষ অনাহারে প্রতিদিন মারা যায় সেখানে সরকার তাদের রক্ষা করার জন্য বিনামূল্যে খাদ্যদ্রব্য দেওয়ার ব্যবস্থা করবে। দিনমজুরি যারা করেন এখন কাজ বন্ধ হওয়ার ফলে তারা রোজগারহীন হয়ে পড়ছেন। তাঁরা যাতে বেঁচে থাকার মতো ন্যূনতম অর্থ পান, খাদ্য পান সেটা দেখাও সরকারেরই দায়িত্ব। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে সেই দায়িত্বের কোনও লক্ষণ পাওয়া গেল না। এটা দেশবাসীকে খুবই হতাশ করবে।