টিডিএন বাংলা ডেস্ক: বেঙ্গালুরুর মুসলিমরা একটি মসজিদের নাম রেখেছেন নরেন্দ্র মোদীজির নামে। ট্যুইটারে এই তথ্য সামনে আসার পর আলোড়ন পড়ে যায়।

উপরের এই ট্যুইটার ৪০০ বার রিট্যুইট করা হয়েছে। এর সঙ্গে ২টি ছবিও দেওয়া হয়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মসজিদে ঢোকার দরজায় লেখা মোদী মসজিদ। অন্যদিকে আর একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে মসজিদের ভেতরে একটি পোস্টারে মোদীর ছবি। হোয়াটসঅ্যাপে এই তথ্য ও ছবি ভাইরাল হয়েছে। ফ্যাক্ট চেকিং ওয়েবসাইট অল্ট নিউজ জানিয়েছে, এই তথ্য ভুল।

পূর্ব বেঙ্গালুরুর তাসকের শহরে মোদী মসজিদের ইমাম গুলাম রব্বানি বলেন, এই মসজিদ ১৭০ বছরের প্রাচীন। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর বয়স আনুমানিক ৬৯। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে মসজিদের কোনও সম্পর্ক নেই।

নরেন্দ্র মোদীর নামে নয়

————————–

অল্ট নিউজ স্পষ্ট দাবি করেছে, বেঙ্গালুরুতে মোদী মসজিদ নামে একটি মসজিদ আছে। কিন্তু সেটা প্রধানমন্ত্রীর নামে নামকরণ হয়নি। ১৭৫ বছর আগে এটি তৈরি হয়েছিল। মোদী আবদুল গাফরের নামে এর নামকরণ হয়। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এর কোনও সম্পর্ক নেই। ফ্যাক্ট চেকিং সাইটে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ছবি ২ টির মধ্যে বাঁদিকের ছবিটি ঠিক। ওটি মোদী মসজিদের। তবে এই মসজিদ প্রধানমন্ত্রীর নামে নামকরণ হয়নি। দ্বিতীয় ছবিটি কোনওভাবেই এখানকার নয়। ২০১৮ সালে ইন্দোরে মোদী একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন, সেটি তখনকার ছবি। অর্থাৎ যে খবর নিয়ে এত আলোড়ন, মোদীর নামে মসজিদ, তা একেবারে ভিত্তিহীন।