দেশের ১৬ রাজ্যের বনাঞ্চল থেকে আদিবাসীদের সরানোর ওপর স্থগিতাদেশ সুপ্রিম কোর্টের

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : আজ অযোধ্যা মামলা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেবে সর্বোচ্চ আদালত। এই মামলায় আদালতের তত্বাবধানে মধ্যস্থতা হবে নাকি অন্য কোনো উপায়ে স্থায়ী মীমাংসার চেষ্টা করা হবে তার ঘোষণা হবে।

বুধবার এই মামলার শুনানি হয় সুপ্রিম কোর্টে। মামলার নিস্পত্তির জন্য বিবদমান দুই পক্ষকেই মধ্যস্থতাকারীর নামের তালিকা জমা দিতে বলে আদালত।  মামলায় অন্যতম পক্ষ হিন্দু মহাসভা মধ্যস্থতার জন্য তিনটি নাম প্রস্তাব করে। তাঁরা হলেন – প্রাক্তন মুখ্য বিচারপতি দীপক মিশ্র,জগদীশ সিং খেহর ও প্রাক্তন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি একে পট্টনায়েক। এদিকে নির্মোহী আখড়াও তিনজনের নাম প্রস্তাব করে। এঁরা হলেন – বিচারপতি কুরিয়েন জোসেফ, একে পট্টনায়েক ও জিএস সিংভি।

অন্যদিকে মুসলমানদের পক্ষে যাঁরা ছিলেন তাঁরা কারও নাম মধ্যস্থতার জন্য প্রস্তাব করেননি। সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে,সাংবিধানিক বেঞ্চ এই মামলা শুনবে নাকি অযোধ্যা মামলা নিম্ন বেঞ্চে শোনা হবে তা নিয়ে নির্দেশ দেওয়া হবে।

মুখ্য বিচারপতি রঞ্জন গগৈ এর নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ এদিন অযোধ্যা মামলা শুনেছে। বিচারপতি এসএ বোবডে,বিচারপতি এনভি রামানা,বিচারপতি ইউইউ ললিত ও বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এই বেঞ্চে বিচারপতি হিসাবে রয়েছেন।