টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আতঙ্ক সঙ্গে নিয়ে তাঁদের জীবন কাটছে। এর মধ্যে আবার হামলার আশঙ্কা। এক হামলার আতঙ্ক কাটার আগেই আবার হামলার আশঙ্কা। আর গুরুগ্রামে থাকার সাহস পাচ্ছেন না গত ২১ মার্চ এখানে প্রহৃত সেই মুসলিম পরিবার। ইতিমধ্যেই তাঁরা সমস্ত জিনিসপত্র গোছগাছ করে ফেলেছেন। খুব তাড়াতাড়ি তাঁরা শহর ছেড়ে চলে যাবেন বলেই খবর। তাঁরা একরাশ আতঙ্ক মনের মধ্যে নিয়ে বলছেন, এভাবে বাঁচা যায়! তাই অন্যত্র চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত।
এরই মধ্যে ওই পরিবারের আশঙ্কা বাড়িয়েছে, পরিবারের ২জনের বিরুদ্ধে পাল্টা এফআইআর দায়ের হওয়ায়। সেইদিন সবচেয়ে বেশি প্রহৃত হয়েছিলেন যে, সেই মহম্মদ সাজিদের তুতো ভাই মহম্মদ আবিদ ও আমির খানের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে অভিযোগ। পরিবারটির তরফে জানানো হয়েছে, এই বিষয়ে তাঁরা কিছুই জানতেন না। পুলিশও কিছু বলেনি। সংবাদমাধ্যম সূত্রে তাঁরা খবরটি জানতে পারেন।
গত ২১ মার্চ গুরুগ্রামের ভোন্দসিতে আক্রান্ত হয় ওই মুসলিম পরিবারের সদস্যরা। প্রায় ৪০ জনের একটি দল এসে লোহার রড এবং হকি স্টিক দিয়ে বেধড়ক পেটায় পরিবারের সদস্যদের।
এই ঘটনার পর পুলিশ জানিয়েছে হোলির দিন ক্রিকেট খেলা নিয়ে তৈরি হওয়া বচসার জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে। অন্যদিকে আক্রান্ত পরিবারের দাবি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের মদতেই দুষ্কৃতীরা প্ল্যান করে এই ঘটনা ঘটিয়েছে।