শরিফুল আলম,টিডিএন বাংলা: বলিউড গায়ক সনু নিগমের আজানের লাউডস্পিকার ব্যবহারের উপর সাম্প্রতিক ট্যুইটের করার পর  সমাজের বিভিন্ন মহল থেকে আসছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ।

এবার এই ইস্যুতে ইয়াসমি আরোরা জুনসি নামের এক মুসলিম মেয়ে ফেসবুকে ভিডিও মাধ্যমে একের পর এক প্রশ্ন ছুড়ে দিল বলিউড গায়কের দিকে।সে চ্যালেঞ্জের সুরে তার সব প্রশ্নের উত্তর দিতে বলল সনু নিগমকে।আর যদি  সে না জবাব দেয় তবে তার মহিলা সংগঠনের কর্মীদের নিয়ে তার বাড়ি গিয়ে তার জবাব চাইবে বলে জানায়।
সে সনু নিগমকে জিজ্ঞাসা করে বলে , “আজানের জন্য যদি আপনার ঘুমের এত সমস্যা হয় তবে পূর্ববর্তী  আপনার ৫০ বছর বয়সের জীবনে এতদিন কেন কোন সমস্যা হলনা? আপনার সমস্যা কী এই জন্য এতদিন হয়নি যে,৫০ বছর অন্য সরকার ছিল, এখন আযান সহ ইসলামের বিরুদ্ধে বলে বিজেপির মত হিন্দুত্ববাদীদের খুশি করে জনপ্রিয়তা লাভের জন্যই কী  এখন আপনার সমস্যা হল?
সনু নিগম  তার ট্যুইটে মাইকের আযানকে ‘গুন্ডাগিরি’-র সাথে তুলে করে বসে। এ প্রসঙ্গে ইয়াসমি বলে,”হাজারো বছর ধরে মাইকের আজানে কারো কোন সমস্যা হয়নি।অথচ আপনি তাকে ট্যুইট করে গুন্ডাগিরির সাথে তুলনা করছেন।সোনুজী গুন্ডাগিরি তাকে বলে যখন গরু রক্ষার অজুহাতে ১০-১৫ জন মিলে একজন মেয়েকে নিলজ্জ কট্টরপন্থী  শয়তানের দল রেপ করে!গৌরক্ষা বাহিনী গরু রক্ষার নামে আখলাক,মিনহাজ,পেহ্লু খানদের মত নিরীহ মুসলমানদের হত্যা করে।কখনো আদিত্যনাথের মত বেহায়া মুখ্যমন্ত্রীরা মুসলিম মেয়েদের কবরসস্থান থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের কথা বলে,আবার কখনো মুসলিম ছেলেদের জোর করে জয় শ্রীরাম না বললে তাদের উপর আক্রমন করে।এগুলো কী ‘গুন্ডাগিরি’ নয়?এই সব গুন্ডাগিরির সময় আপনার ট্যুইট কোথায় যায়? আপনার কী এগুলো গুন্ডাগিরি মনে হয় না।
মেয়েটি আরো প্রশ্নের বান ছুড়ে জানতে চাই, “আপনি যখন  রাতের বেলা একটা নয় ৫০ টা ডিজে নিয়ে গানের অনুষ্ঠান করেন,তখন কী কারো সমস্যা হয় না?”এইরকম বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে একের পর এক প্রশ্নের জবাব দাবি করে  এই মেয়েটি।
ইয়াসমি আরোরা গায়ককে জনপ্রিয়তার লোভে নিষ্ঠাকে ত্যাগ না করে ন্যায়বিচার করার পরামর্শ দেয়।এরসাথে সে আযান ইস্যুতে মুসলিমদের পাশে থাকার জন্য নিষ্টাবান হিন্দু ছেলে-মেয়েদের কৃতজ্ঞতা জানায়।