টিডিএন বাংলা ডেস্কএককথায় কী বলা যায় একে! ধোকাবাজি! কিষাণ যোজনার টাকা নিয়ে উত্তরপ্রদেশে যা হল, একে এইভাবে আখ্যা দেওয়া ছাড়া কোনো রাস্তা নেই। ভোট মিটতেই বিজেপি ফাঁকা বাগাড়ম্বর প্রকাশ্যে এল। তাও আবার বিজেপি শাসিত রাজ্য উত্তর প্রদেশেই। এবারের লোকসভা ভোটপ্রচারে কংগ্রেস বরাবরই মোদিকে বিঁধে এসেছে এই বলে যে তিনি কৃষকদের দুরবস্থা নিয়ে আদৌ চিন্তিত নন। সেই অভিযোগ খন্ডনের চেষ্টায় ভোটের আগে আদর্শ নির্বাচনীবিধি লাগু হওয়ার পূর্বেই ঢাকঢোল পিটিয়ে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি যোজনা চালু করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। এই যোজনার আওতায় কেন্দ্রের তরফে প্রত্যেক কৃষকের অ্যাকাউন্টে ২০০০ টাকা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু উত্তর প্রদেশের আঞ্চলিক দৈনিকগুলির সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ীরাজ্যের বহু অঞ্চলের কৃষকরা অভিযোগ করেছেনতাঁদের অ্যাকাউন্ট থেকে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি যোজনার ওই ২০০০ টাকা বের করে নেওয়া হয়েছে। অথচ তাঁরা কেউই ওই টাকা নিজেরা ব্যাঙ্ক থেকে তোলেননি। তাঁদের অভিযোগব্যাঙ্ক থেকে প্রয়োজনে টাকা তুলতে গেলে ম্যানেজাররা তাঁদের জানানওই যোজনায় তাঁদের অ্যাকাউন্টে কোনও টাকা নেই।

যে সব এলাকার কৃষকরা এই অভিযোগ করেছেনতার মধ্যে আছেন মুজাফ্‌ফরনগর এবং ফইরোজাবাদের কৃষকরা। পুরো ঘটনায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ রাজ্য কৃষক সংগঠনের অভিযোগকৃষকদের সঙ্গে আবারও বিশ্বাসঘাতকতা করেছে বিজেপি সরকার। দরিদ্র কৃষকদের সঙ্গে প্রতারণার ফল বিজেপিকে ভুগতে হবে বলেও সতর্ক করেছেন তাঁরা।‌‌

কৃষক সমস্যা নিয়ে বারেবারে নাজেহাল হয়েছে মোদী সরকার। এবার তাঁদের সঙ্গে প্রতারণার জ্বলন্ত উদাহারণ সামনে এল।