টিডিএন বাংলা ডেস্ক : ক্রমাগত ট্রোলিং ও প্রাণনাশের হুমকিতে জেরবার হয়ে অবশেষে নিজের ট্যুইটার একাউন্ট বন্ধ করে দিলেন বামপন্থী ছাত্ৰ নেত্রী শেহলা রাশিদ৷ ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে ট্রোলিং-এর প্রভাব যাতে সুদূরপ্রসারী না হয়, সেইজন্যই নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট ডিএক্টিভেট করেছেন তিনি৷

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) তুমুল ছাত্র আন্দোলনের সময় শেহলা জনসমক্ষে পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন৷ তারপর থেকেই হিন্দুত্ববাদী সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্টরা তাকে উত্যক্ত করতে শুরু করে৷ ট্রোলিং, হত্যার হুমকি, ধর্ষণের হুমকিও তাকে দেওয়া হয়েছে৷

‘জাস্ট, আর সহ্য করা যাচ্ছে না’, মন্তব্য করেই এইবার তিনি ট্যুইটার ছাড়লেন৷ তিনি বলেন, ‘শুধু আমার জন্য নয়, ট্যুইটার গণতন্ত্রের জন্যও ক্ষতিকর৷’