টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আগেই ব‍্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে, প‍্যান কার্ডের সঙ্গে আধার লিঙ্ক করানো হয়েছে। এবার ভোটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিঙ্ক করানোর উদ‍্যোগ নিল কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকার। এবিষয়ে সম্মতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রক। তবে ভােটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড সংযুক্তিকরণের ক্ষেত্রে কয়েকটি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে বলে নির্বাচন কমিশনকে পরামর্শ দিয়েছে আইন মন্ত্রক। মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হওয়া আটকাতেই এই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা বলে জানানাে হয়েছে।

আইন মন্ত্রকের পরামর্শের জবাবে কী কী সতর্কতামূলক ব্যবস্থা অবলম্বন করা হচ্ছে , ইতিমধ্যেই তা জানিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। ইলেক্টোরাল রােল ডেটাবেস কোনওভাবেই আধার ইকোসিস্টেমের মধ্যে প্রবেশ করবে না বলেও জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

গতবছর কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রককে লেখা একটি চিঠিতে। নির্বাচন কমিশন রিপ্রেজেনটেশন অব দ্য পিপল অ্যাক্ট ১৯৫০ এবং আধার অ্যাক্ট ২০১৬ – তে কয়েকটি সংশােধনীর প্রস্তাব করে। এই সংশােধনী কার্যকর হলে নির্বাচনী আধিকারিক ভােটার তালিকায় নতুন নাম তােলা বা ইতিমধ্যেই ভােটার তালিকায় যাদের নাম রয়েছে , তাদের আধার নম্বর চাইতে পারেন । তবে কেউ তার আধার নম্বর বলতে না পারলেও ভােটার তালিকায় নাম তােলার ক্ষেত্রে তা বাধা হবে না। আধার নম্বর না থাকলেও ভােটার তালিকা থেকে কারাের নাম বাদ যাবে না বলেও জানানাে হয়েছে । আবার তথ্য সংগ্রহ করে অবৈধ ভােটারদের চিহ্নিত করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।